ধোনির অবসর নিয়ে প্রশ্ন তোলায়, এক ভক্তকে যা বললেন শুনলে অবাক হবেন!

সাম্প্রতিক অতীতে তার সেরা ফর্মের ধারে কাছেও নেই প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি, বিশেষ করে ব্যাট হাতে। এবং চতুর্দিক থেকে সমালোচিত হচ্ছিলেন তার ম্যাচকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার অক্ষমতার জন্য, বিশেষ করে যেভাবে তিনি অতীতে দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতেন তা না পারায়। এমনকী দক্ষিণ আফিরকার বিরুদ্ধে জোহানেসবার্গের চতুর্থম্যাচেও, ধোনি বড় শট খেলতে ব্যর্থ হন, এবং মাত্র ৪২ রান করেন রানের থেকেও অনেক বেশি বল খেলে। ২০১৪য় ধোনি ক্রিকেটের দীর্ঘতম ফর্ম্যাট থেকে অবসর নিয়েছেন এবং মাত্র দেড় বছর আগে ওয়ান ডে এবং টি২০র অধিনায়কত্ব থেকেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন। যদিও তিনি এখনও ওয়ান ডে এবং টি২০ দলের গুরুত্বপূর্ন অঙ্গ হিসেবে দলে শামিল রয়েছেন এবং যতক্ষন না তিনি নিজে থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন ততক্ষন এটা যে কোনো উদীয়মান ক্রিকেটারের জন্য ভারতীয় দলে প্রথম একাদশে জায়গা পাওয়া ভীষণই মুশকিল হতে পারে, একমাত্র যদি না কেউ চোট আঘাতের শীকার হয়। ধোনির ভারতীয় দলে খেলা নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে প্রশ্ন উঠে চলেছে এবং অনেকেই ধোনিকে পরামর্শ দিয়েছেন যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে তিনি অবসর নিন। এক ভক্ত প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটসম্যান এবং বর্তমান ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ আকাশ চোপড়ার টুইটার হ্যান্ডেলে একটি প্রশ্ন রেখেছেন। ওই ভক্ত আকাশ চোপড়ার টুইটার হ্যান্ডেলে লেখেন, “ ধোনির অবসর নেওয়া উচিৎ স্যার। এ ব্যাপারে আপনার কি মত”? জবাবে আকাশ চোপড়া উত্তর দেন, “ কারও অধিনাক্র নেই কাউকে বলার যে সে কখন অবসর নেবে। আমি আবারও বলছি… কারও নেই”।

আকাশ চোপড়ার এই প্রতিক্রিয়ার জবাবে অন্য এক টুইটার ইউজার লেখেন যে তাহলে বিশ্বের সবচেয়ে বড় গনতান্ত্রিক দেশে থাকার অর্থ কি? ওই টুইটার ইউজার লেখেন, “ তাহলে পৃথিবীর সবচেয়ে বড়ো গনতান্ত্রিক দেশে থাকার মানেটাই বা কি যেখানে আপনি কিছুই বলতে পারবেন না”? ধোনির যে কোন দলে প্রতি দেখানো যোগদানকে দেখে, এটা নিয়ে কোনো সন্দেহ থাকারই কথা নয় যে এই অবস্থায় ধোনি এখনও ভারতের সেরা উইকেটকীপার ব্যাটসম্যান, এবং তিনি অবশ্যই দলে তার জায়গা ধরে রাখবেন, অন্তত ২০১৯ বিশ্বকাপ অব্ধি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: