২০১৯ আইপিএল-এ চেন্নাই সুপার কিংস থেকে বাদ পড়তে পারেন যে ৫ খেলোয়াড়

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের সেরা দল বা ফ্র্যাঞ্চাইজি কোনটা? সফলতা বিচার করলে অবশ্যই একটা দলের নামই আসে সবার আগে, সেই দলটা চেন্নাই সুপার কিংস। ভক্ত এবং অনুসারী সংখ্যার দিক থেকেও অন্যান্য দলগুলোর তুলনায় অনেক এগিয়ে এই ফ্র্যাঞ্চাইজি। তাই যখন তাঁদের দুই বছরের জন্য আইপিএল থেকে ব্যান করে দেওয়া হয়েছিল, এই গোটা টুর্নামেন্টটাই যেন তার জৌলুশ হারিয়ে ফেলেছিল। আইপিএলে নিজেদের এক অন্য জায়গা করে নিয়েছে এই দল। তাই এই দলের এই টুর্নামেন্টে ফিরে আসার অপেক্ষা ছিল সকলেরই, আর ফিরে এসেই চেন্নাই জিতে নিয়েছে এই বহুমুল্যবান টুর্নামেন্টের ট্রফি।

অনেকে বিশেষজ্ঞই অনুমান করেছিলেন যে এই আইপিএল-এ সেরকমও কিছু করতে পারবে না চেন্নাই। কিন্তু সকলকে ভুল প্রমাণ করে গোটা টুর্নামেন্ট জুড়ে অসাধারণ পারফর্ম করে শেষমেশ ট্রফি যেতে ধোনির নেতৃত্বাধীন চেন্নাই-ই। তবু চেন্নাই জানে যে নতুন মরসুমে জিততে হলে তাঁদের নতুনভাবে তৈরি হয়ে আসতে হবে, ন্তুনভাবে দলগঠন করতে হবে। যদিও তারা আগের বছর এই টুর্নামেন্ট জিতেছে, তবু তাদের দলে কিছু দুর্বল জায়গা ছিল। সেই জায়গাগুলো অবশ্যই উন্নত করবে চেন্নাই। এখানে কিছু খেলোয়াড়ের নাম দেওয়া হলও যারা হয়তো এবছর চেন্নাই দল থেকে বাদ পরতে পারেন।

১। আসিফ কেএম

মাত্র ৪০ লাখ খরচা করে ২০১৮ আইপিএল-এর নিলাম থেকে চেন্নাই এই খেলোয়াড়টিকে কিনেছিল। চেন্নাইয়ের আসিফকে কেনার মূল কারণ আসিফের গতি। ২০১৭-১৮ মরসুমে বিজয় হাজারে ট্রফি ও সাইদ মুস্তাক আলি ট্রফিতে এই তরুণ ১৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা গড়ে বল করেছেন। আসিফ আইপিএল-এ চেন্নাইয়ের হয়ে প্রথম সুযোগ পেয়েছেন দিল্লির বিরুদ্ধে ম্যাচে। ওই ম্যাচেই প্রথম ৩ ওভারেই ৪৩ রান খেয়েছেন তিনি। এর পর মাত্র আর একটা ম্যাচের জন্যই দলে সুযোগ পান তিনি আর তারপর তাঁকে দল থেকে বসিয়ে দেওয়া হয়। তাই পরের আইপিএল-এর আগেই তাঁকে নিলামে বিক্রি হতে দেখা যেতে পারার সম্ভাবনাটাই বেশি।

২। মার্ক উড

এই খেলোয়াড়ের ওপর যথেষ্ট প্রত্যাশা ছিল যখন চেন্নাই সুপার কিংস এই আইপিএল-এ তাঁকে ১.৫ কোটি টাকার মোটা অঙ্ক দিয়ে দলে নিয়েছিল।  সেইসময়কার ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের নিয়মিত বোলার ছিলেন তিনি এবং নতুন বলহাতে দারুণ পারফর্মার ছিলেন। সিএসকে-এর মরসুমের প্রথম ম্যাচেই তাঁকে দলে সুযোগ দেওয়া হয়। ওই ম্যাচে ৪ ওভারে ৪৯ রান দিয়ে ব্যয়বহুল প্রমাণিত হন তিনি। এর পরের ৯ ম্যাচ ধরে শুরুর একাদশ থেকে তাঁকে বাইরেই থাকতে দেখা যায়। এর পর সে বিরক্ত হয়ে ইংল্যান্ডেই ফেরত চলে যান কাউন্টি ক্রিকেট খেলার জন্য। তাই পরের আইপিএল-এর শুরুর আগে তাঁকে হয়তো চেন্নাইয়ের দল থেকে সড়ে যেতে দেখা যেতেই পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: