আজ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকায় যে দুটি টেস্ট জিতেছে ভারত, শুনলে মনে হবে এরা থাকলে ভাল হত

নেলসন ম্যান্ডেলার দেশে আজকের (৫ জানুয়ারি) আগে পর্যন্ত ভারত মোট ১৭টি টেস্ট খেলেছে তার মধ্যে হেরেছে ৯টি-তে, ড্র ৬টিতে। এখন দেখে নেবো যে দুটি টেস্ট আজ পর্যন্ত ভারত খেলেছে–

প্রথম টেস্ট জয় (২০০৬, ১৫-১৮ ডিসেম্বর,জোহানেসবার্গ) (অধিনায়ক-রাহুল দ্রাবিড়)

সংক্ষিপ্ত স্কোরবোর্ড ভারত- ২৪৯, ২৩৬ দ.আফ্রিকা- ৮৪,২৭৮

ভারত জয়ী ১২৩ রানে
ম্যাচের সেরা এস শ্রীসন্থ (প্রথম ইনিংসে ৫টি ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৩টি উইকেট)

সিরিজের প্রথম টেস্টে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই ওপেনার ওয়াসিম জাফর (৯), বীরেন্দ্র সেওয়াগ (৪)-কে হারিয়ে ছিল ভারত। তারপর দ্রাবিড় (৩২), সচিন (৪৪) ভাল খেললেও আউট হয়ে যান। শেষ অবধি কঠিন পরিস্থিতিতে ব্যাট করতে নেমে সৌরভ গাঙ্গুলি (৫১)-দলকে মোটামটি লড়ার মত জায়গায় নিয়ে যান। তবে প্রথম ইনিংসে ভারত ২৪৯ রান করলেও, দক্ষিণ আফ্রি্কার তারকা খচিত ব্যাটিং লাইন আপের কাছে তা যথেষ্ট ছিল কী! কিন্তু সবাইকে চমকে দেন ভারতীয় পেসাররা। গিবস, কালিস, আমলা,ডেভিলিয়ার্স, বাউচারদের নিয়ে গড়া শক্তিশালী দ.আফ্রিকা ব্যাটিং মাত্র ২৫ ওভারের মধ্যেই অল আউট হয়ে যায়। দক্ষিণ আফ্রিকা ৮৪ রানে অলআউট হয়। চারজন ব্যাটসম্যান করেন ০ রান, মাত্র তিনজন দু অঙ্কের রান করেন। সে দিন জোহানেসবার্গে আগুন ঝড়িয়েছিলেন শ্রীসন্থ। ৪০ রানে ৫ ইকেট নিয়েছিলেন পরবর্তীকালে গড়াপেট কাণ্ডে জেল খাটা শ্রীসন্থ। পেসারদের সহায়ক পিচে ১৬৫ রানের বড় লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেম লক্ষ্মণের ৭৩ রানের ইনিংসে সৌজন্যে ভারত করে ২৩৬ রান। শেষের দিকে জাহির খানের ৩৭ রানের ইনিংসটা খুব কাজে দিয়েছিল।

জিততে হলে দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে করতে হত ৪০২ রান। সেখানে ১২০ রানের মধ্যেই অর্ধেক ইনিংস মুড়িয়ে গিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। প্রথম ইনিংসের মত দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই প্রোটিয়াদের জোর ধাক্কা দিয়েছিলেন শ্রীসন্থ। শ্রীসন্থের দুরন্ত ডেলিবারিতে আউট হয়েছিলেন স্মিথ, আমলা, গিবস। একাই লড়ছিলেন অ্যাসলে প্রিন্স। তবে কুম্বলের বলে প্রিন্স (৯৭) আউট হওয়ার পরেই পরিষ্কার হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকায় ভারত প্রথমবার ঐতিহাসিক টেস্ট জিততে চলেছে। কুম্বলের বলে এনতিনি-র এলবি-র সঙ্গে সঙ্গে প্রথমবার ম্যান্ডেলার দেশে টেস্ট জিতে নেয় ভারত।

দ্বিতীয় টেস্ট জয় (২৬-২৯ ডিসেম্বর, ডারবান) অধিনায়ক-এমএস ধোনি

ভারত- ২০৫, ২২৮
দক্ষিণ আফ্রিকা- ১৩১, ২১৫

ভারত জয়ী ৮৭ রানে
ম্যাচের সেরা-ভিভি এস লক্ষ্মণ

সিরিজের প্রথম টেস্টে বিশ্রি হারের পর ডারবানে দ্বিতীয় টেস্টে নেমেছিল ভারত। প্রথম ইনিংসে ২০৫ রানে যখন ভারত অল আউট হয়েছিল, তখনও বোঝা যায়নি এই টেস্ট জিতে ফিরবে ভারত। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকাকে প্রথম ইনিংসে ১৩১ রানে গুটিয়ে জয়ের গন্ধ পেতে শুরু করে ভারত। প্রথম ইনিংসে হরভজন নিয়েছিলেন ৪টি ও জাহির ৩টি উইকেট। লো স্কোরিং ম্যাচ, কঠিন পিচে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করে যাওয়ার সময় ভারতের লিড ছিল ৭৪ রানের। কিন্তু ৯৩ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে মহাবিপদে পড়ে যায় ভারত। দ্রাবিড় (২), সচিন (৬)-র তখন সোতসবে,স্টেইনের আগুনে পেসে জ্বলে ছারকার। সেখান থেকেই ৯৬ রানের দুরন্ত একটা ইনিংস খেলে দলকে ভাল জায়গায় নিয়ে যান। ভারত দ্বিতীয় ইনিংসে করে ২২৮ রান। জয়ের জন্য ৩০৩ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে দারুণ শুরু করে দ.আফ্রিকার দুই ওপেনার গ্রেম স্মিথ ও আলিভারো পিটারসেন। তবে ভাজ্জির ব্রেক থ্রুয়ে ম্যাচে ফেরে ভারত। শেষ অবধি দক্ষিণ আফ্রিকা অল আউট হয় ২১৫ রানে। তিনটি করে উইকেট নেন জাহির ও শ্রীসন্থ। ২০০৬-এর প্রথম টেস্টে জয়ের মত এই টেস্টের প্রথম ইনংসে আগুন ঝড়ান শ্রীসন্থ। কেরলের এই পেসার নেন ৩টি উইকেট, জাহির খান নেন ৩ উইকেট। হরভজন সিং নিয়েছিলেন ২টি উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: