কাল শুধু ঐতিহাসিক সিরিজ জয় নয়, সঙ্গে যা যা বড় রেকর্ড ভাঙল ‘টিম ইন্ডিয়া’, শুনলে চমকে যাবেন

২৫ বছরে এই প্রথম দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ওয়ান ডে সিরিজ জিতল ভারত৷ পোর্ট এলিজাবেথে মঙ্গলবারের ওয়ানডে ম্যাচটা সব দিক থেকে ভারতীয়দের জন্য চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে–এক নজরে দেখে নিন এর বাইরে কোন বড় রেকর্ড ভাঙা-গড়ার খেল খেলল টিম ইন্ডিয়া।

১) পোর্ট এলিজাবেথের মাঠে প্রথমবার কোনও ভারতীয় ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি করলেন-গতকাল সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে রোহিত করলেন ১১৫ রান । ১২৬ বলের ইনিংসে চারটি ওভার বাউন্ডারি এবং ১১টি বাউন্ডারি মারেন টিম ইন্ডিয়ার ডান হাতি ওপেনার৷ এর আগে ২০১১ সালে এই মাঠেই ৮৭ রানে অপরাজিত ছিলেন বিরাট কোহলি। পোর্ট এলিজাবেথে এটাই ছিল কোনও ভারতীয়র করা সবচেয়ে বড় রানের ইনিংস। ভারত এই মাঠে ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে ৬টা ম্যাচ খেলে ফেলল।

২) বিশ্ব ক্রিকেটের দ্বিতীয় দল হিসেবে টানা ৯টা ওয়ানডে সিরিজ জিতল। এরা আগে ১৯৮০-৮৮ টানা ৯ বছর, টানা ১৫টা ওয়ান সিরিজ জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

৩) দক্ষিণ আফ্রিকায় কোনও স্পিনার হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটের ইতিহাসে একটা সিরিজে সফলতম বোলার হলেন কুলদীপ যাদব। কুলদীপ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম পাঁচটা ম্যাচে ১৬টা উইকেট পেলেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় একটা ওয়ানডে সিরিজে এর আগে কোনও স্পিনার এত সফলতা পায়নি। এর আগে এই রেকর্ডটা ছিল মুত্তিয়া মুরলীধরনের কাছে। ১৯৯৮ ত্রিদেশীয় সিরিজে মুরলী ১৪টা উইকেট পেয়েছেন। যোগবেন্দ্র চাহাল আবার চলতি সিরিজের প্রথম ৫টা ম্যাচে ১৪টা উইকেট পেয়েছেন। মানে চাহাল আর একটা উইকেট পেলেই ছাপিয়ে যাবেন মুরলীকে।

৪) দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সবচেয়ে ভারতীয়দের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ গড়লেন শিখর ধাওয়ান-রোহিত শর্মা। পোর্ট এলিজাবেথে মঙ্গলবার ধাওয়ান-রোহিত ওপেনিং পার্টনারশিপে করেছিলেন ৪৮ রান। ভারত এখনও পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ১৯টা ওয়ানডে খেলে ফেললেও হাফ সেঞ্চুরি ওপেনিং পার্টনারশিপ হয়নি

৫) ২০১৭/১৮ ক্রিকেট ক্যালেন্ডারে তিন ধরনের ফরম্যাট মিলিয়ে ৫৭টা ওভার বাউন্ডারি হাঁকানো হয়ে গেল রোহিত শর্মার। একটা ক্যালেন্ডার বর্ষে এত ছক্কা আর কেউ হাঁকাননি। পোর্ট এলিজাবেথে ছক্কা হাঁকিয়ে রোহিত ছাপিয়ে যান দু বছর আগে করা কিউই ব্যাটসম্যান মার্টিন গুপ্তিল (৫৬)-এর রেকর্ড।

৬) বিশ্বের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে বিরাট কোহলি ৬ ম্যাচের দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজে ৪০০+ রান করলেন। রোহিত শর্মা-র পর যে কোনও ধরনের দ্বিপাক্ষিক ওয়ানডে সিরিজে ৪০০+ রান করারও নজির গড়লেন কোহলি

৭) প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে উইকেটের পিছনে ৫০০টা শিকার (ক্যাচ+স্ট্যাম্প) হয়ে গেল মহেন্দ্র সিং ধোনির। এই কৃতিত্ব বিশ্ব ক্রিকেটের আর মাত্র সাতজনের আছে। ধোনি তাঁর প্রথম শ্রেণী (আন্তর্জাতিক ক্রিকেট+ঘরোয়া ক্রিকেট)-র ক্রিকেটে ৩৭৫টি ক্যাচ ও ১২৫টি স্ট্যাম্পিং করেন।

৮) আর অবশ্যই…প্রথম ভারতীয় অধিনায়ক হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়ানডে সিরিজ জিতলেন বিরাট কোহলি।

আগের ২৫ বছরেরে ইতিহাস:
১৯৯২-৯৩ আজহারউদ্দিনের অধিনায়কত্বে ৭ ম্যাচের সিরিজ ২-৫ হারে ভারত৷
২০০৬-০৭ রাহুল দ্রাবিড়ের নেতৃত্বে ৫ ম্যাচের সিরিজ ০-৪ হারে ভারত৷
২০১০-১১ মহেন্দ্র সিং ধোনীর ভারত ৫ ম্যাচের সিরিজ ২-৩ হারে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: