গুরুতর চোট পেলেন কেকেআরের তারকা খেলোয়াড়!

তাঁর বোলিংয়ে ঘায়েল হয়েছেন অনেক বড় বড় ব্যাটসম্যানই। তাঁর বাউন্সারে মুখ ফেটেছে অনেকের। এবার মাথা ফাটল নিজের। তবে বোলিংয়ের সময় নয়। জিমে কসরত করার সময় মাথায় গুরুতর চোট পেয়েছেন জোরে বোলার মাইকেল জনসন। সম্প্রতি অবসর নিয়েছেন। দেশের হয়ে আর হাত ঘরাচ্ছেন না। তবে আইপিএলে খেলবেন। একাদশ আইপিএলে.২ কোটি টাকায় এই স্পিডস্টারকে দলে নিয়েছে কেকেআর।

কিন্তু চোট পাওয়ার খবরে গুবলেট হয়ে গেল সব। জনসনের মাঠে নামার ওপর ঝুলছে বড়সড় প্রশ্নচিহ্ন। জিম করতে গিয়ে মাথা ফাটিয়ে ফেলেছেন। নিজের ভুলে মাথা ফাটিয়ে ফেলার পর দ্রুতই তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। দিতে হয়েছে ১৬টি সেলাই। মাথায় চোট পাওয়ার সেই ভয়াবহ ছবি জনসন শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। লিখেছেন, ‘যদি কাঁটাছেঁড়া-রক্ত দেখতে না পারেন তবে এই ছবি না দেখাই ভালো। আমার করা সেরা জিনিস এটা নয়। যাইহোক আমি সুস্থ আছি।’

কিন্তু কতটা সুস্থ? জনসন কি মাঠে নামতে পারবেন? এই প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে নাইটদের শিবিরে। আগের মরশুমে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন এই অষ্ট্রেলিয় জোরে বোলার। চলতি মরশুমে খেলবেন কলকাতার হয়ে নাইট শিবিরে। জনসনের পরিসংখ্যান হিংসে করার মতো। ৩০৬ টি টেস্ট উইকেট আছে তাঁর ঝুলিতে। একদিনের ক্রিকেটে উইকেট পেয়েছেন ২৩৯ টি। সব মিলিয়ে পাঁচশোর বেশি উইকেট আছে জনসনের ঝুলিতে।

If you don’t like blood & cuts then don’t look through these pics! Not the best thing I’ve ever done to myself but I’m am fine ?? #toohardtoexplain #dontfightchinupbar #stilldontknowhowitspossible #18.3grrrrr #baldspot?

A post shared by Mitchell Johnson (@mitchjohnson398) on

জনসনের ব্যাটের হাত মোটামুটি। দলের প্রয়োজনে খেলে দিয়েছেন মাঝে মধ্যে। ২০০৮ সালে ভারতের বিরুদ্ধে অর্ধ শতরাণ আছে তাঁর। যদিও দেশকে জেতাতে পারেননি। এখনও পর্যন্ত তাঁর সেরা বোলিং দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। ২০১৩-১৪ মরশুমে প্রটিয়েদের বিরুদ্ধে আগুন ছুটিয়েছিলেন তিনি। প্রথম টেস্টের প্রথম দিনেই তুলে নিয়েছিলেন ৭ উইকেট। দ্বিতীয় ইনিংসে পেয়েছিলেন আরও ৫ উইকেট। প্রথম অষ্ট্রেলিয় বোলার হিসাবে ব্রুস রিডের পর ১২ উইকেট পাওয়ার কৃতিত্ব মাইকেল জনসনের। শুধু তাই নয় তৃতীয়বারের মতো টেস্টে ১০ উইকেট লাভের নজিরও তাঁর দখলেই। ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন ১২ বার। একদিনের ম্যাচে এই ৫ উইকেট নিয়েছেন ৩ বার।

সব মিলিয়ে রীতিমতো ভয় ধরিয়ে দেওয়া বোলিং গড় অস্ট্রেলীয় জোরে বোলার মাইকেল জনসনের। দেশের হয়ে অবসর নিলেও হাত ঘোরাচ্ছেন বিভিন্ন টি টোয়ান্টি টূর্ণামেন্টে। একাদশ আইপিএলেও খেলার কথা তাঁর। কলকাতা নাইট রাইডার্স ২ কোটি টাকার বিনিময়ে দলে নিয়েছে এই জোরে বোলারকে। এখনও দলের সঙ্গে যোগ দেননি। অষ্ট্রেলিয়াতেই আছেন। গা ঘামাচ্ছেন। এদিন সকালে জিমে গিয়েছিলেন। চিন-আপ করার সময় অসাবধানে বারে ধাক্কা লেগে মাথা ফেটে যায় জনসনের।

ফাটা মাথার সেই ছবি নিজেই ইনস্টাগ্রামে দিয়েছেন তিনি। দেখা গেছে, প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। এই জোরে বোলারকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকেরা তাঁর মাথার ফাটা জায়গায় ১৬টি সেলাই করেছেন। এখন বিশ্রামে। আইপিএল শুরু হতে মাত্র কয়েক সপ্তাহ। এর মধ্যে সুস্থ হতে পারবেন মাইকেল জনসন? নাইটরা তাকিয়ে আছে তাঁর দিকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: