ওয়ান-ডে ক্রিকেটে সব চেয়ে বেশি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন যে ১০ ক্রিকেটার!

ক্রিকেটের কোন ব্যাপারটা অনুরাগীদের বেশি আকর্ষণ করে? নিঃসন্দেহে ব্যাটিংটা নিশ্চয়। ব্যাটিংয়ের কথা এলে চার ও ছয়ের কথা চলে আসে। পোশাকি নাম বাউন্ডারি আর ওভারবাউন্ডারি। এর মধ্য়ে বাউন্ডারিই সবচেয়ে বেশি চোখে পড়ে। ওয়ান-ডে ক্রিকেটে ম্যাচ জিততে হলে বা বড় টার্গেট সেট করতে হলে ওভার পিছু ২টি বাউন্ডারি গড়ে অন্তত চাই। জানেন, সবচেয়ে বেশি চার মারার নজির কোন ব্যাটসম্যানের দখলে রয়েছে? জানেন কি, সেরা সেরা দশের তালিকায় তিন ভারতীয় ক্রিকেটার রয়েছেন?

ওডিআই’তে বাউন্ডারির নিরিখে সেরা দশ –

১০. ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটের সীমিত ওভারের স্পেশালিস্ট ক্রিকেটার গেইল ১৯৯৯ থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। ২৭৫টি ম্যাচে ৯৪২০ করতে ১০৫৪টি বাউন্ডারি বেরিয়ে এসেছে তাঁর ব্যাট থেকে।

৯. তিলকরত্নে দিলশান (শ্রীলঙ্কা)

দিলস্কুপের জনক দিলশানের ব্যাটিং ছিল আলাদা শৈলীর। ১৯৯৯ সাল থেকে ২০১৬, এই পর্বে ৩৩০টি ওডিআই’তে ১০২৯০ রান করার পথে ১১১১টি বাউন্ডারি মেরেছিলেন তিলকরত্নে।

৮. মাহেলা জয়বর্ধনে (শ্রীলঙ্কা)

প্রাক্তন লঙ্কান ক্যাপ্টেন ১৯৯৮ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত আন্তর্জাতিক মঞ্চে ৪৪৮টি ওডিআই খেলেন। ১১১৯টি বাউন্ডারি সাহায্যে ১২৬৫০ রান করেন।

৭. সৌরভ গাঙ্গুলি (ভারত)

ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক তাঁর কেরিয়ারের শেষের দিকে রান করার ক্ষেত্রে ধারাবাহিকতা না দেখাতে পারলেও, ব্যাটসম্যান হিসেবে দাদা কেরিয়ারের শুরুর দিকে স্টার ছিলেন। শচীন-সৌরভ ওপেনিং জুটি আজও সর্বকালের সেরা। সৌরভ ১৯৯২ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন। ৩১১টি ম্যাচে ১১৩৬৩ রান করতে ১১২২টি বাউন্ডারি মেরেছিলেন।

৬. বীরেন্দ্র সেহওয়াগ (ভারত)

ভারতের প্রাক্তন ওপেনার দেশের হয়ে ১৯৯৯ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত ওয়ান-ডে ক্রিকেট খেলেছেন। তারমধ্যে ২৫১ টি ওডিআই ম্যাচে রানের সংখ্যা ৮৭২৩। আর বাউন্ডারির সংখ্যা ১১৩২টি।

৫. অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (অস্ট্রেলিয়া)

বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা উইকেটকিপার গিলি অস্ট্রেলিয়া হয়ে ১৯৯৬ থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত ক্রিকেট খেলেন। ২৮৭টি ম্যাচে ৯৬১০ করা গিলক্রিস্টের বাউন্ডারি সংখ্যা ১১৬২।

৪. রিকি পন্টিং (অস্ট্রেলিয়া)

অস্ট্রেলিয়ার দু’বারের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক রিকি পন্টিং ১৯৯৫ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ক্রিকেট খেলেছেন। ৩৭৫টি ম্যাচে ১৩৭০৪ রান করা পান্টার ১২৩১টি চার মারেন।

৩. কুমার সাঙ্গাকারা (শ্রীলঙ্কা)

গত প্রজন্মের অন্যতম সেরা ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব। সাঙ্গা ২০০০-২০১৫ সালের মধ্যে ৪০৪টি ওডিআই খেলেন এবং তাঁর ১৪২৩৪ রানের মধ্যে ১৩৮৫টি বাউন্ডারি রয়েছে।

২. সনৎ জসূর্য (শ্রীলঙ্কা)

শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ওপেনার সনৎ জয়সূর্য ১৯৮৯ সাল থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ছিলেন। ৪৪৫টি ম্যাচে ১৩৪৩০ রানের মধ্য়ে বাউন্ডারির সংখ্যা ১৫০০টি।

১. শচীন তেন্ডুলকর (ভারত)

ক্রিকেটের ইশ্বর সবার আগে। চব্বিশ বছরের দীর্ঘ ক্রিকেট কেরিয়ার শেষ দিকে একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা কমিয়ে দেন মাস্টার ব্লাস্টার। শেষ দেড় বছর টেস্ট ছাড়া ওয়ান-ডে ক্রিকেটের দিকে দেখেনইনি। কিন্তু, রেকর্ড বুকে তিনি ধরা ছোঁয়ার অনেক বাইরে। ১৯৮৯ থেকে ২০১৩, এই পর্বে তেন্ডলা ৪৬৩টি ওডিআই ম্যাচ খেলেন। তাঁর ১৮৪২৬ রানের মধ্য়ে বাউন্ডারির সংখ্যা ২০১৬টি।

আরো পড়ুন- বারবার ব্যর্থ হচ্ছেন!হতাশ হবেন না, এমন দশজন মহাতারকা ক্রিকেটারের কথা জানুন যারা একেবারে ব্যর্থতা থেকে মহাসাফল্য পেয়েছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: