জঙ্গীদের আশ্রয়দাতা পাকিস্তান- এমনই চাঞ্চল্যকর মন্তব্য আমেরিকার

পাকিস্তানকে জঙ্গীদের পৃষ্ঠপোষক বলে মন্তব্য করল আমেরিকা| আন্তর্জাতিক মঞ্চে ফের একবার ধাক্কা খেল পাকিস্তান| মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পাকিস্তানকে সন্ত্রাসবাদীদের আশ্রয়স্থল বলেও মন্তব্য করে| মার্কিন কংগ্রেসে পেশ করা বিদেশ দফতরের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে যে পাকিস্তান জঙ্গীদের পৃষ্ঠপোষক| লস্কর, জইশ ইত্যাদি ভয়ঙ্কর জঙ্গী গোষ্ঠীগুলি পাকিস্তানে অবাধে নিজেদের কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছে| পাকিস্তান সরকার সব কিছু জেনেও তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না|

‘Country Report On Terrorism 2016’ নামের এই রিপোর্টে বলা হয়েছে পাকিস্তানে জইশ-ই-মহম্মদ, লস্কর-ই-তৈবার মত জঙ্গী গোষ্ঠী গুলির বাড়বাড়ন্ত| পাকিস্তান সরকার এদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয় না| ফলে এরা পাক ভূখন্ডে অবাধে সংগঠন তৈরি করছে, প্রশিক্ষন শিবির চালাচ্ছে এবং অর্থ সংগ্রহ করছে| পাকিস্তান সরকার এদের দমন করার বদলে এদের গোপনে সাহায্য করে চলেছে| প্রতিবেশী দেশ ভারতে জঙ্গী গোষ্ঠী গুলি ক্রমাগত আক্রমন করে চলেছে| লস্কর পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হলেও তাদের শাখা সংগঠন জমাত-উদ-দাওয়া এবং ফলাহ-এ-ইনসানিয়ত পাকিস্তানে প্রকাশ্যে সক্রিয়| রিপোর্টে পাঠানকোট বায়ুসেনা ঘাঁটিতে হামলা, অমরনাথ হত্যাকান্ড, হাফিজ সইদের পাকিস্তানে অবাধ গতিবিধি, দাউদ ইব্রাহিমের দলের সঙ্গে জঙ্গী গোষ্ঠী গুলির যোগাযোগ এবং অন্যান্য বেশ কিছু হামলার উল্লেখ রয়েছে| এই রিপোর্ট থেকে স্পষ্ট, সন্ত্রাস এবং জঙ্গীদের কার্যকলাপ নিয়ে পাকিস্তানকে চেপে ধব়তে চায় ট্রাম্প প্রশাসন| পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আমেরিকার এই কঠোর মনোভাব কার্যত তাদের চাপে ফেলে দিল|

মার্কিন বিদেশ মন্ত্রক এই কান্ট্রি রিপোর্টে বলেছে, পাকিস্তান শুধুমাত্র তেহরিক-ই-তালিবানের মত যে সব জঙ্গী গোষ্ঠী পাকিস্তানের ভিতরেই হামলা চালিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে কিছু অভিযান চালিয়েছে বটে কিন্তু আফগান তালিবান বা হক্কানিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কিছুই করেনি তারা| আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীকে আঘাত হানার পরও তারা জঙ্গীগোষ্ঠী গুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি| তবে আফগান নেতৃত্বাধীন শান্তি প্রক্রিয়ায় উভয় গোষ্ঠীকে সামিল করার প্রয়াসকে পাকিস্তান স্বাগত জানিয়েছে|

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: