লোকসভায় ভোটে মদন মিত্র এই পাঁচটা কেন্দ্রের একটা থেকে দাঁড়াতে পারেন

মদন মিত্র একজন বিশিষ্ট ভারতীয় রাজনীতিবিদ এবং প্রাক্তন বিধায়ক। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিধানসভার নির্বাচনে ২০১১ এ কামারহাটি এলাকা থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন।ভোটের প্রায় ৫৮ শতাংশ পেয়ে নির্বাচনে কামারহাটি থেকে সিপিএমের মানস মুখোপাধ্যায়কে পরাজিত করেছিলেন তিনি। তিনি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ক্রীড়া ও স্বাধীনতা বিষয়ক মন্ত্রী ছিলেন এবং ২০১৪ সালের ১৮ নভেম্বর তিনি মন্ত্রীত্ব থেকে পদত্যাগ করেছিলেন। পরবর্তী সময় সারদা কাণ্ডে তাকে গ্রেফতার করা হয় এবং কলকাতা হাইকোর্ট কর্তৃক জামিনে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়। এবার লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের মন্ত্রী সভায় পুরনো চেনা ছন্দে দেখা যাচ্ছে মদন মিত্রকে। এবার শাসক দলের তরফে প্রাক্তন মন্ত্রীকে ফের লোকসভার প্রার্থী পদ দেওয়ার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে জানা যায়। সুতরাং এবার মদন মিত্রকে প্রার্থী পদে মনোনীত করলে কোন পাঁচটি কেন্দ্রে তাকে দাঁড় করানো হতে পারে, তার একটি সম্ভাব্য তালিকা দেওয়া হল :

৫) দক্ষিণ কলকাতায় সুব্রত বক্সির পরিবর্তে :

দক্ষিণ কলকাতার একটা বড় অংশ সুব্রত বক্সির দায়িত্বে রয়েছে। লোকসভা নির্বাচনে দক্ষিণ কলকাতার কেন্দ্র থেকে মদন মিত্রকে দাঁড় করানো হতে পারে বলে মনে করা হয়। কেননা জনদরদী নেতা হিসেবে তিনি কর্মী মহলে পরিচিত। সে ক্ষেত্রে দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা নির্বাচনে একটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র। সেখানে শাসক দলের তরফে একটি পরিচিত মুখ প্রার্থী হিসেবে প্রয়োজন বলে মনে করা হচ্ছে।

৪) মথুরাপুর :

প্রাক্তন ক্রীড়ামন্ত্রীর সম্ভাব্য প্রার্থী পদের তালিকায় পরবর্তী নাম হল মথুরাপুর। মথুরাপুরে তৃণমূলের প্রভাব বিস্তার করার জন্য প্রয়োজন একজন দাপুটে নেতা। সে দিক দিয়ে দেখতে গেলে মদন মিত্র খুবই পরিচিত মুখ। সেজন্য মথুরাপুরে লোকসভা নির্বাচনে মদন মিত্রকে প্রার্থী পদ দেওয়া যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

৩) বাঁকুড়া মুনমুন সেনের পরিবর্তে :

শাসক দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি কেন্দ্র হল বাঁকুড়া। সেখানে অভিনেত্রী মুনমুন সেনের পরিবর্তে মদন মিত্রকে প্রার্থী করা যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কেননা রাজ্যের সমস্ত স্তরেই মদন মিত্রের পরিচিতি বিরাট। সে কারণে গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রগুলিতে প্রাক্তন এই মন্ত্রীকে প্রার্থী করার কথা ভেবে দেখছে দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: