জানেন বিশ্বের কোন দেশের হাতে কতগুলি পরমাণু বোমা আছে, আর সেগুলি কোথায় লোকানো!

বিশ্বের ৯টি দেশ পরমানু শক্তিধর। স্বীকৃত পারমাণবিক শক্তিধর দেশ হচ্ছে মাত্র পাঁচটি – আমেরিকা, রাশিয়া, ব্রিটেন, ফ্রান্স, ও চিন। তবে ভারত, পাকিস্তান, ইজরায়েল, উত্তর কোরিয়া ভারত, ইসরায়েল আর পাকিস্তান কখনো পরমাণু অস্ত্র-বিস্তার রোধ চুক্তি বা এনপিটিতে সই করে নি। উত্তর কোরিয়া সই করেও ২০০৩ সালে এ থেকে বেরিয়ে যায়। তা তাদের স্বীকৃত পরমানু শক্তিধর দেশ বলা হয় না। তাই এসব দেশগুলির কাছে কত পরমাণু অস্ত্র আছে তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। তবে সম্প্রতি এক গোয়েন্দা রিপোর্টে জানা গিয়েছে কোন দেশের কাছে কত পরমাণু অস্ত্র রয়েছে।

পৃথিবীর মোট ১০ টি দেশের হাতে এখন ৯ হাজার পরমাণু বোমা আছে। পরমাণু বোমাগুলো অনেক ক্ষেত্রে বসানো আছে ক্ষেপণাস্ত্রের মাথায়। তা ছাড়া আছে বিভিন্ন সামরিক বিমান-ঘাঁটিতে বা অস্ত্রের গুদামে। আমেরিকা আর রাশিয়া- এই দুটি দেশের কাছে পরমাণু বোমা আছে প্রায় ১৫ হাজার বোমা। তবে এই হিসেবে এমন বোমাও ধরা হয়েছে যেগুলো এখন ‘অবসরে’ যাচ্ছে অর্থাৎ এগুলো অচিরেই খুলে ফেলা হবে। স্টকহোমের একটি পিস রিসার্চ ইনস্টিটিউট বলছে, ১৯৮০ দশকে পারমাণবিক বোমা বা ওয়ারহেডের সংখ্যা ছিল প্রায় ৭০ হাজার।

১০. ইরান 

৯. উত্তর কোরিয়া (পরমান অস্ত্র ৫০)

উত্তর কোরিয়া যে কী করে সেটা কেউ জানে না। সবাই বলে, পরমাণু অস্ত্র সমৃদ্ধকরণ, উন্নয়নে বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে বিপজ্জনক দেশ হিসেবে অভিহিত করা হয় উত্তর কোরিয়াকে।এখন পর্যন্ত প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, উত্তর কোরিয়ার কাছে ১০ থেকে ২০টির মতো পারমাণবিক বোমা রয়েছে৷ তবে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে সবচেয়ে বেশি ধোঁয়াশা আছে। দেশটির নিজেদের এ ধরনের বোমা তৈরির সক্ষমতা রয়েছে কি না, তা নিশ্চিত নয়৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: