বাড়িতে বসেই মোটা টাকা আয়ের সুযোগ করে দিচ্ছে মোদী সরকার!

বাড়িতে বসে কাজ করে টাকা উপার্জন করতে চান? এবার তাতে আপনাকে সাহায্য করবে মোদী সরকার। দেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ এখন তেমন নেই। এছাড়া ১০-৫ টার বাঁধাধরা চাকরি অনেকেরই পছন্দ নয়। অনেক শিক্ষিত যুবক যুবতী সরকারি ও বেসরকারি কর্মসংস্থানের আশায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারই এবার এই শিক্ষিত যুবক যুবতীদের জন্য এক নতুন পরিকল্পনা নিয়ে এসেছে। তাদের দিচ্ছে বাড়িতে বসেই রোজগারের সুযোগ।

বাড়িতে বসে ইন্টারনেটের মাধ্যমে কাজ করে আয়ের বিঞ্জাপন বিভিন্ন স্থানে দেখা যায়। কিন্তু এগুলো অধিকাংশ ক্ষেত্রে ভুয়ো হয়। কিন্তু মোদী সরকার এবার বেকারদের বাড়িতে বসে আয়ের রাস্তা খুলে দিল। এর জন্য কোনো বিনিয়োগের প্রয়োজন নেই। শুধু প্রয়োজন কম্পিউটার ও ইন্টারনেট। এটি শুধু ডেটা এন্ট্রির কাজ। যত শব্দ টাইপ করতে পারবেন ততই আয় করতে পারবেন। বলিউড সেলিব্রেটিদের ছোটবেলায় কেমন দেখতে ছিল জানেন? কিছু জনকে তো চেনাই যাচ্ছে না

সরকারি তথ্য ডিজিটাল ফর্মে রাখার জন্য আগে কেন্দ্র কোটি কোটি টাকা ব্যয় করেছে। কিন্তু লাভ হয়নি। সব নথিকে ডিজিটাল ডকুমেন্ট হিসেবে রাখার জন্য চেষ্টা করা হলেও কাজ হয়েছে খুবই ঢিমেতালে ফলে তথ্য রাখাও যায় নি ঠিকমতো। এই জন্য মোদী সরকার এক নতুন পরিকল্পনা নিয়ে এসেছে দেশবাসীর জন্য। ডিজিটাল ইন্ডিয়া প্রকল্পের আওতায় শুরু হয়েছে ডিজিটাইজ ইন্ডিয়া প্ল্যাটফর্ম। এই প্রকল্প যুবক যুবতীদের আয়ের রাস্তা খুঁজে দিয়েছে। সরকারি নথি থেকে ডেটা এন্ট্রি করলে টাকা মিলবে। কিভাবে করতে হবে এই কাজ তা দেখে নিন।

প্রথমে  https://digitizeindia.gov.in/signup এই ওয়েবসাইটে গিয়ে সাইন আপ করতে হবে। এর জন্য আপনার পুরো নাম, ইমেল, জন্মতারিখ, আধার নম্বর, মোবাইল নম্বর এবং ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট নম্বর লাগবে। সাইন আপ করে প্রোফাইল ভেরিফিকেশন করাতে হবে। এরপর অ্যাপ্রুভ হলে ওয়েবসাইটে যেভাবে বলা হয়েছে সেভাবে ডেটা এন্ট্রির কাজ শুরু হবে। কাজ ঠিকমত হলে রিওয়ার্ড পাবেন।

এই কাজে প্রতি ক্যারেক্টার পিছু আয় ২ পয়সা। যাদের টাইপিং স্পীড বেশি তারা প্রতি ঘন্টায় ২৫০০ পয়েন্ট পর্যন্ত টাইপও করতে পারেন। সব মিলিয়ে মাসিক ৭-৮ হাজার টাকা কামানো যাবে এই কাজ থেকে। এই কাজের টাকা সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে জমা পড়বে, চাইলে সরকারকে দান করে দিতেও পারেন। সরকার সমস্ত নথিপত্র ডিজিটাল ডকুমেন্ট হিসেবে রাখতেই এই পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: