গরুর মাংসের বিকিনি পরে নগ্ন শরীর ঢাকলেন মডেলরা দেখুন গোকিনি-মডেলদের ছবি

মেয়েদের শুধু মাংসের ঢেলা মনে করা হয়। আর তাই মাংস দিয়েই নিজেদের নগ্নতায় রক্ষা করলেন মডেলরা। বিশ্বজুড়ে চলা মেয়েদের ওপর যৌন হেনস্থার ওপর এভাবেই প্রতিবাদ জানালেন ব্রাজিলের মডেলরা। মডেলদের দাবি, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির থেকেও ফ্যাশান দুনিয়ায় মেয়েদের বেশি যৌন লালসার শিকার হতে হয়। আর সেই প্রতিবাদে ৫০ কেজি গো-মাংস দিয়ে তৈরি বিকিনি পরে Ramp-এ হাঁটলেন মডেলরা। গরুর মাংসকে প্রতীকী হিসেবে ব্যবহার করে সেই মডেলরা বললেন, মেয়েরা মাংসের দলা নয়। মাংস আর মেটেদের শরীরের মধ্যে অনেক পারাক রয়েছে। এমন দশটা দেশ যেখানে ছেলেদের থেকে মেয়েরাই বেশি পর্ন দেখে

প্রায় ৫০ কেজি গো-মাংস মডেলদের বিকিনি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। মিস বাম বাম’ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছিল ব্রাজিলে। রক্ত-মাংসের শরীরের বাইরে তাঁদেরও আবেগ, অনুভূতি, ভালোবাসা রয়েছে। তাই শুধুই তাঁদের ‘ভোগ্য’ ভাবা বন্ধ হোক। সুন্দরী প্রতিযোগিতার মঞ্চে অভিনব পোশাকে যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালেন মডেলরা। ব্রাজিলের রিও শহরের এক মডেল বলছেন, ‘আমাদের শুধুমাত্র মাংসের দলা মনে করা হবে কেন? অতিরিক্ত সেক্সি হওয়াটা কি অপরাধ? হলিউড অভিনেত্রীদেরও তো কত লালসার শিকার হতে হয়, সেক্ষেত্রে আপনারা কী অজুহাত দেবেন?’ হানিপ্রীতের ‘পর্ন’ দেদার বিকোচ্ছে উত্তর ভারতে, দেখুন কীভাবে মিলল এই পর্ন, প্রতিবেদনটি পড়লে আপনার চোখ কপালে উঠে যাবে

যৌন হেনস্থার প্রতিবাদে সম্প্রতি শুরু হয়েছিল #Meetoo ক্যাম্পেন। সেখানে অনেকেই নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন। বিশ্ব জুড়ো ঝড় তুলেছে সেই ক্যাম্পেন। পেলে, নেইমারের দেশে #Meetoo ক্যাম্পেন ঝড় উঠেছে।

এদিকে, হলিউডে যৌন হয়রানির শিকার ব্যক্তিদের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বেশ বড়সড় মিছিল হল বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে । সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘হ্যাশট্যাগ মি টু’ প্রচারণায় উদ্বুদ্ধ হয়ে এ মিছিলে যৌন হয়রানির শিকার মহিলাদের পাশাপাশি অনেকে অংশ নিয়েছেন। মিছিলটি হলিউড থেকে শুরু হয়ে সিএনএন সদর দপ্তরে গিয়ে শেষ হয়।ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে সত্যি সেক্স উঠে গেল নায়িকার, বন্ধ হল শ্যুটিং

হ্যাশ ট্যাগ ‘মি টু’ – প্রথমে শুরু করেছিলেন সমাজকর্মী তারানা বুর্ক এবং পরে এটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায় অভিনেত্রী আলিসা মিলানো প্রযোজক হার্ভি ওয়েনস্টেইনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রকাশের পর। এর পর বিশ্বজুড়ে যৌন হয়রানির শিকার হওয়া নারীদের অনেকেই এ প্রচারণায় এগিয়ে আসেন এবং অনেকেই নিজের ঘটে যাওয়া এসব হয়রানির ঘটনা প্রকাশে এগিয়ে আসেন।

তারানা বুর্ক ইভেন্টের বিষয়ে বলেন, ‘এটি প্রত্যেক হার্ভি ওয়েনস্টেইনের জন্য। এধরনের আরও শত শত পুরুষ আছে যারা এ ধরনের কাজই করছে’। পর্ন ইন্ড্রাস্ট্রিতে নাম লেখাতে রাজি আছেন যে পাঁচ বলিউড অভিনেত্রী, জানে তালিকায় আছেন কোন চক দে গার্ল

সম্প্রতি হলিউডের বেশ কয়েকজন নায়িকা বলেছেন অস্কারজয়ী প্রযোজক হার্ভি ওয়েনস্টেইনের কাছে কী ধরনের যৌন হয়রানির শিকার হন।এরপর সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘মি টু’ হ্যাশ ট্যাগে অনেক মহিলা-পুরুষ জানিয়েছেন কীভাবে তারা যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: