বাজেটের দিনে বড় ধাক্কা খেল বিজেপি, রাজস্থানে কংগ্রেসের কাছে গো হারা হার, বাংলায় মমতার কাছে ধাক্কা

বাজেটে অরুন জেটলি যখন একের পর এক ঘোষণা করছেন। নরেন্দ্র মোদী তখন টেবিল চাপড়ে তাঁকে সমর্থন যাচ্ছেন। মোদী-জেটলি-র এই হাসি মিলিয়ে গেল দুই রাজ্যের উপনির্বাচনের ফলাফল সামনে আসতেই। পশ্চিমবঙ্গ, রাজস্থান দুটো রাজ্যেই একেবারে খারাপভাবে হারল।

বিজেপিকে সবচেয়ে বেশি হতাশ করল রাজস্থানের দুটি লোকসভা, ও একটি বিধানসভা কেন্দ্রের ফলাফল। বিজেপি শাসিত রাজস্থানে চলতি বছরেই বিধানসভা ভোট। আর বসুন্ধরা রাজের সরকার সেই ভোটের আগে এই উপনির্বাচনে হেরে বড় ধাক্কা খেল।

গত ২০১৪ লোকসভা ভোটে রাজস্থানের যে আসনে বিজেপি জিতেছিল প্রায় ৩ লক্ষ ভোটে সেখানেই এবার তারা হেরে গেল। রাজপুতরা মুখ ফিরিয়ে নেওয়ায় বিজেপি-র এই হাল। পাশাপাশি যে আজমের লোকসভা কেন্দ্রে সচিন পাইলটের মত হেভিওয়েট কংগ্রেস নেতার বিরুদ্ধে দেড় লক্ষের মত ব্যবধানে জিতেছিল বিজেপি, সেখানেও তারা বড় ব্যবধানে হারল।

মন্দের ভালো অবশ্য পশ্চিম বাংলায় হল বিজেপি-র। উলুবেড়িয়া লোকসভা ও নোয়াপাড়া বিধানসভা উপনির্বাচনে বিজেপি দ্বিতীয় হলে, যেখানে গতবার বিজেপি-র প্রার্থী চতুর্থ স্থানে থাকায় জামানত জব্দ হয়েছিল। অবশ্য এটাও ঠিক নোয়াপাড়া বিধানসভা আর উলুবেড়িয়া কেন্দ্রে যেভাবে বড় ব্যবধানে জিতল তৃণমূল, তাতে আর কয়েকটা মাস পরে পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিজেপি-র বিশেষ সুবিধা হবে না। রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে নাড়াতে গেলে পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভাল করতেই হবে বিজেপি-কে। কিন্তু তৃণমূলের থেকে অনেকটা পিছনে থেকে দ্বিতীয় হয়েই বিজেপি-র রাজ্য নেতারা যেভাবে ঢেঁকুর তুলছেন। সেটা মোটেও ভাল খবর নয় পদ্মশিবিরের কাছে।

সব মিলিয়ে লক্ষ্মীবারে বাজেটের দিনে মোদী সরকারের দিনটা একেবারেই ভাল গেল না।

Prime Minister of India Narendra Modi waves following a joint statement to the press with Mexican President Enrique Pena Nieto, in Los Pinos presidential residence in Mexico City, Wednesday, June 8, 2016. Modi met with the Mexican President Wednesday evening during a short working visit to the country.(AP Photo/Rebecca Blackwell)

শেষ পাওয়া খবর অনুয়ায়ী ২ লাখের বেশি ভোটে এগিয়ে রয়েছেন তৃণমূল প্রার্থী সাজেদা আহমেদ। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বিজেপি। তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে রয়েছে যথাক্রমে সিপিআইএম ও কংগ্রেস।

সাতটি বিধানসভা আসন নিয়ে গঠিত উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্র। এর মধ্যে রয়েছে উলুবেড়িয়া পূর্ব, উলুবেড়িয়া দক্ষিণ, উলুবেড়িয়া উত্তর, শ্যামপুর, বাগনান, আমতা ও উদয়নারায়ণপুর। গত ২৯ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ হয় উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রে। আজ ফলাফল ঘোষণা। কড়া নিরাপত্তার মধ্যে চলছে ভোট গণনা।

তৃণমূল সাংসদ সুলতান আহমেদের মৃত্যুর কারণে উপনির্বাচন অনিবার্য হয়ে পড়ে এই আসনটিতে। উপনির্বাচনে এই কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হয়ে দাঁড়িয়েছেন সুলতান আহমেদেরই স্ত্রী সাজেদা আহমেদ। অন্যদিকে বিজেপির হয়ে লড়ছেন অনুপম মল্লিক। সিপিএমের তরফে দাঁড়িয়েছেন সাবিরুদ্দিন মোল্লা। কংগ্রেসের প্রার্থী মোদারসর হোসেন ওয়ার্সি।

উপনির্বাচনের প্রচার পর্ব থেকেই উলুবেড়িয়ায় জোর টক্কর চলে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে। ভোটের আগে থেকেই শাসকদলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগে সরব হয় বিরোধীরা। বিক্ষিপ্ত অশান্তিরও খবর মেলে। তবে আধা সামরিক বাহিনীর উপস্থিতিতে মোটের উপর শান্তিপূর্ণ ছিল ভোটগ্রহণ। অন্যদিকে একদা সিপিএম-এর লাল দুর্গ বলে পরিচিত উলুবেড়িয়ায়, গতবারের থেকেও বেশি মার্জিনে জেতার ব্যাপারে আশাবাদী তৃণমূল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: