ঘরে নিয়ে গেলেই খারাপ হয়ে যাচ্ছে মোবাইল, ৭ মাসে মোট ২৯ বার মোবাইল বদেলেছেন ইনি, কিন্তু কেন জানেন

একেবারে ভূতুড়ে বাড়ি। বাড়ির বাইরে একেবারে সব ঠিকঠাক। বাড়িতে ঢুকলেই মোবাইল সেটটা আর কাজ করছে না। নদীয়ার দিলীপ মণ্ডলের কথা প্রথমে কেউ বিশ্বাস করেনি। কিন্তু ফোনের কোম্পানি লোক পাঠানোর পর কপালে হাত। এ কী করে সম্ভব। দীর্ঘ ৭ মাস ধরে এমন সমস্যাতেই জেরবার তিনি।

ঘরে ঢোকার দুদিনের মধ্যে খারাপ হয়ে যাচ্ছে সেই মোবাইল। যন্ত্র যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে ঘরের ভিতর নতুন করে ওয়্যারিং করিয়েছেন। ইলেকট্রিশিয়ান দেখে পরীক্ষা করিয়েছেন ঘরের সমস্ত বৈদ্যুতিন সংযোগকে। কোথাও কোনও সমস্যা মেলেনি। এদিকে মোবাইল যন্ত্রণারও কোনও সুরাহা হয়নি। নদীয়ার মাঠপাড়ার বাসিন্দা দিলীপ মণ্ডলের এমন সমস্যায় বিশেষজ্ঞরাও হতবাক।

৭ মাসে মোট ২৯ বার মোবাইল বদলেছেন দিলীপ। এখন দোকানদারও আর মোবাইল নিতে রাজি হচ্ছে না। বাধ্য হয়ে মোবাইল নিয়ে আর ঘরের চৌকাঠ-ই পেরচ্ছেন না তিনি। বাড়ির বাইরে বাঁশ পুঁতে তাতেই মোবাইল টাঙিয়ে রেখেছেন দিলীপ মণ্ডল। আর রাত হলে মোবাইল গিয়ে রেখে আসছেন প্রতিবেশীর বাড়িতে।

৭ মাসে মোট ২৯ বার মোবাইল বদেলেছেন। কিন্তু প্রতিবার সেই এক গল্প। মোবাইল সেটটা বিকল হয়ে যাচ্ছে। সিগন্যালের অভাবে কোনও কোনও বাড়িতে ফোনে নেটওয়ার্ক আসে না সেটা স্বাভাবিক, কিন্তু এভাবে আস্ত মোবাইল সেটটাই খার, কস্মিনকালে কেউ শোনেনি।

বাড়ির সামনে বাঁশে ঝুলছে মোবাইল। কোনওভাবেই ঘরের ভিতরে মোবাইল নিয়ে যাওয়ার জো নেই। কারণ ঘরে নিয়ে গেলেই খারাপ হয়ে যাচ্ছে মোবাইল। শুনতে অবাক লাগলেও নদীয়ার দিলীপ মণ্ডল। কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: