যদি বিশ্ব ক্রিকেটে রাজ করতে হয়, ওকে কোচ বানাও; ভারতকে পরামর্শ হেডেনের!

যদিও ভারতীয় দল তাদের ব্যাটিং এবং বোলিং বিভাগে দিন দিন উন্নতি করে চলেছে, কিন্তু সেই সঙ্গে তাদের ফিল্ডিংও উল্লেখযোগ্যভাবে নীচের দিকে নামতে শুরু করেছে। আরও পরিস্কার করে বলতে গেলে প্রধানত ভারতের স্লিপ ফিল্ডিংই সেই জায়গা যা নিয়ে হেড কোচ রবি শাস্ত্রী এবং তার দলের আরও কাজ করা প্রয়োজন। স্লিপে ক্যাচ ছাড়ার মুল্য হিসেবে ফিরোজ শাহ কোটলায় শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে জেতা টেস্ট ম্যাচ তাদের ড্র করতে হয়েছে। সেই সঙ্গে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ এবং দীনেশ চান্ডীমলকে সেই পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে সেঞ্চুরি করে শ্রীলঙ্কাকে হারের মুখ থেকে টেনে এনে ড্রয়ের দিকে নিয়ে যেতে দেখে যায়।


সাম্প্রতিক সময়ে আমরা দেখেছি যে সাম্প্রতিক সময় আমরা ক্রিকেট দলগুলিকে প্রতিটি বিভাগের জন্য কোচ হায়ার করতে দেখেছি, এবং তা শুধু মাত্র ব্যাটিং বোলিং এবং ফিল্ডিংই নয় বরং প্রতিটি বিভাগের সাব-ডিভিশন যেমন ফাস্ট বোলিং, স্পিন বোলিং, ডায়েটিং, ফিজিক্যাল ট্রেনিংয়ের ক্ষেত্রেও একই পদ্ধতির প্রয়োগ দেখা গেছে। ভারতীয় দলকেও একই পদক্ষেপ নিতে দেখা গেছে যখন তারা রাহুল দ্রাবিড়কে বিদেশের মাঠে ভারতীয় দলের ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিযুক্ত করে যদিও শেষ পর্যন্ত তা চুড়ান্ত করা হয়নি। অন্যদিকে এই মুহুর্তে প্রশ্নও উঠতে শুরু করেছে যে ভারত কি তাদের ফিল্ডিংয়ের জন্য কোচ নিযুক্ত করবে?

প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় কিংবদন্তী ম্যাথু হেডেন এ ব্যাপারে আলোকপাত করেছেন। ‘হেইডোস’ নামে পরিচিত হেডেনের মতে যদি কেউ কোনো দলের জন্য স্লিপ ফিল্ডিং কোচ হন, তাহলে তিনি আর কেউ নন রিকি পন্টিংই হবেন। একটি দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে হেডেন বলেন, “ ক্রিকেট বিশ্ব স্লিপ ফিল্ডিং কোচের ব্যাপারে ভাবে না, কিন্তু যদি তাদের ((ভারত) কাউকে প্রয়োজন হয়, তবে তিনি হবে রিকি পন্টিং। ওই জায়গায় ও ছিল অবিশ্বসনীয়”।

শচীনের মতো এই ক্রিকেটারদেরও জার্সি অবসর দেওয়া উচিত সম্মান জানাতে

হেডেন আরও খোলসা করে বলেছেন যে ক্রমাগত স্লিপ এরিয়ার ফিল্ডার বদলানো যে কোনো দলের পক্ষেই ভালোর থেকেও বেশি খারাপ হতে পারে। এ ব্যাপারে ক্লোজ ফিল্ডার হিসেবে পরিচিত হেডেনের বক্তব্য, “ কারোরই তাদের ফিল্ডারদের নির্ধারিত জায়গা থেকে পরিবর্তন করা উচিৎ নয়। যদি মিস্টার এক্স নিয়মিত ফার্স্ট স্লিপ এরিয়ায় ফিল্ডিং করে থাকেন, তাহলে তাকে সেই জায়গাতেই ফিল্ডিং করতে দেওয়া উচিৎ, কারণ সেই ফিল্ডার ক্রমাগত একই জায়গায় দাঁড়ানোর কারণে কমফোর্টেবল ফিল করতে শুরু করেন। এবং শেষ পর্যন্ত তিনি ওই জায়গায় ব্যক্তিগতভাবে তার ফিল্ডিংয়ে অ্যাডজাস্টমেন্ট করার চেষ্টা করতে থাকেন যখন তিনি ওই একই জায়গায় ফের দাঁড়ানোর সুযোগ পান”। দাদা, ধোনি না বিরাট; অশ্বিনের মতে দেশের সেরা অধিনায়ক কে?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: