আইপিএল ২০১৮’র নিলামের তারিখ ও স্থান ঘোষিত!

২০১৮র আইপিলএল নিলাম এক বিশাল বড়ো উৎসব হতে চলেছে, যেখানে প্রচুর সংখ্যক প্লেয়ার নিলামে উঠতে চলেছেন। প্রথমে বিসিসিআইয়ের নজর ছিল গোয়ায় জানুয়ারীর প্রথম সপ্তাহে এই নিলাম অনুষ্ঠিত করার। কিন্তু বিসিসিআই এই ব্যাপারে ফের চিন্তা ভাবনা করতে বাধ্য হয় কারণ সেই সময় গোয়ায় নিউ ইয়ারের কারণে প্রচুর ভীড় হওয়ার সম্ভবনা থাকে। বিভিন্ন দেশ থেকে পর্যটকরা ছাড়াও, ভারতের বিভিন্ন জায়গা থেকেও বহু মানুষ সেই সময় গোয়ায় ছুটী কাটাতে আসে। শেষ আইপিএলের অকশন হয়েছিল ফ্রেব্রুয়ারি মাসে ব্যাঙ্গালুরুতে। তবে এখন ডেট এবং ভেনু দুটোই ফাইনাল করে ফেলেছে বিসিসিআই। এই মেগা অনুষ্ঠান আগামি জানুয়ারির ২৭ এবং ২৮ তারিখ দু’দিন ধরে অনুষ্ঠিত হবে ব্যাঙ্গালুরুতে।

বিসিসিআইয়ের এক আধিকারিক এই খবর কনফার্ম করে জানিয়েছেন, “যেহেতু বেশি সংখ্যক ক্যাপড প্লেয়ার এই নিলামে অংশ নেবেন তাই এই এই নিলাম বিশাল হতে চলেছে, যা জানুয়ারির ২৭ এবং ২৮ তারিখ ব্যাঙ্গালুরুতে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। যেহেতু ব্যাঙ্গালুরুতে আগের সমস্ত নিলামগুলিই অনুষ্ঠিত হয়েছিল তাই এই জায়গাই ফ্রেঞ্চাইজিগুলির পছন্দ হয়েছে”।

তবে ২০১৮র আইপিএল নিলাম কোথায় হবে সেটা বড়ো কথা নয়, যেখানেই হোক এই নিলাম সবচেয়ে বড় ইভেন্ট হতে চলেছে। চেন্নাই সুপার কিং এবং রাজস্থান রয়্যালসহ(যারা দু’বছরের নির্বাসন কাটিয়ে এই আইপিএলে ফিরে এসেছে) ৮টা টিমই এই নিলামে অংশ নেবে। আইপিএল গভর্নিং বডির নতুন প্লেয়ার রিটেনশন পলিসির কারণে সমস্ত দলগুলিই নতুনভাবে ফের তাদের হোমওয়ার্ক ভালো করে কষে নিয়ে এই নিলামে অংশ নেবে। একটা দল সর্বোচ্চ পাঁচজন করে প্লেয়ার রিটেন করতে পারবে অকশনের আগে এবং সেই সঙ্গে তারা অকশন চলাকালীনই আরটিএমও করতে পারবে। কিছু দল আইপিএল ২০১৮র নিলামে হয়ত কোনো রিটেনশনই না করে নতুন করে দল গঠন করে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করবে। কিন্তু তা হওয়ার নয়। রিটেনশনের ক্ষেত্রে ফ্রেঞ্চাইজি গুলোকে বুদ্ধির পরিচয় দিতে হবে কারণ তাদের বাজেট মাত্র ৮০ কোটি টাকা, এবং অকশনের আগে প্লেয়ার রিটেন করা তাদের পকেটে টান ধরাতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: