আইপিএল ২০১৮: ইডেনে কেকেআর ম্যাচের জন্য দিল্লির প্রথম একাদশ!

জয়ে ফিরেছে গৌতম গম্ভীরের দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। কলকাতা নাইট রাইডার্সকে সাত বছর নেতৃত্বে টুর্নামেন্টের ইতিহাসের অন্যতম সেরা টিম করে তোলার পর এবছর ঘরে ফিরেছেন গোতি। ২০১৮ আইপিএল শুরু হওয়ার পর থেকে একটা অপেক্ষা রয়েছে। কলকাতা গম্ভীরের সেকেন্ড হোম। এখানে যেদিন তিনি ডেয়ারডেভিলস টিম নিয়ে খেলতে আসবেন, সেদিন কিরকমভাবে তাঁকে আপ্যায়ন করে নেবেন তিলোত্তমাবাসী। ইডেন প্রত্যেকটা ঘাস কেমন আচরণ করে, তা ভালো করেই জানেন গোতি। সেকেন্ড হোমে ফেরার আগে একটা জয় দরকার ছিল গম্ভীরের দলের।

প্রতিযোগিতার শুরুটা মনমতো না হলেও, দ্বিতীয় ম্যাচটা ব্যাডলাক ছিল। বৃষ্টি পুরো ডুবিয়েছে। তৃতীয় ম্যাচে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে জয়, টিমের মনোবলকে গগনচুম্বী করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। বর্তমানে আইসিসি ব়্যাঙ্কিয়ের সেরা টি-২০ ব্যাটসম্যান কলিন মুনরোকে সরিয়ে জসন রয়’কে খেলিয়ে মাস্টারস্ট্রোক দিয়েছে দিল্লি টিম ম্যানেজমেন্ট। সোমবার (১৬ এপ্রিল) ম্যাচের দিন আরও একজনকে সামলাতে হবে নাইটদের। তিনি হলেন পেস বোলার মহম্মদ সামি। উত্তরপ্রদেশ ক্রিকেটার জাতীয় দলের যাওয়ার আগে বাংলা টিমে খেলতেন।

ইডেনে ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে সামি। মানসিক ক্লান্তি কাটিয়ে আস্তে আস্তে ছন্দে ফিরছেন তিনি। কে বলতে পারে, ইডেনেই ভয়ঙ্কর মূর্তি ধরলেন নির্বাচকদের উদ্দেশে কড়া বার্তা পাঠাতে। কারণ, সামনের বছর পঞ্চাশ ওভারের বিশ্বকাপ ক্রিকেট। ওই টুর্নামেন্ট সামি খেলতে চান। যাইহোক, আইপিএল ক্রিকেটেই ফিরে আসা যাক। মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে জেতার পর প্রথম একাদশে খুব একটা বদল আনতে ইচ্ছুক না হলেও, ইডেনের পিচে স্পিনার অমিত মিশ্রাকে কাজে লাগবে। ফলে, প্রথম একাদশে তাঁর ফেরার সম্ভাবনা। এখানে বেল রাখা ভালো, সাত বছর আগে গোতি দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের জার্সি গায়ে খেলে গিয়েছিলেন ইডেনে।

দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের প্রথম একাদশ –

১. জেসন রয়

কলিন মুনরোর পরিবর্তে গত ম্যাচে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে প্রথম একাদশে সুযোগ পান জেসন রয়। ম্যাচ নির্ণায়ক ইনিংস খেলেন। ৫৩ বলে অপরাজিত ৯১ রানের ইনিংস খেলার পথে স্ট্রাইক রেট ছিল ১৭৪-এর কাছাকাছি। ৬টা চার ও সমসংখ্যক ছয় বেরিয়ে আসে তাঁর ব্যাট থেকে।

২. গৌতম গম্ভীর (অধিনায়ক)

গোতি গতম্যাচে শুরুটা ভালো করেও বেশিদূর এগোতে পারেননি। প্রথম ম্যাচে অর্ধশতরানের দিকে নজর রাখলে মুম্বই ম্যাচে গোতির খেলা ডিফেন্সিভ ছিল। ইডেনের চেনা পিচে গোতির বিস্ফোরক রূপ নিতে সময় লাগবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: