আইপিএল ২০১৮ : পরিসংখানের বিচারে ভবিষ্যৎবাণী : কলকাতা না হায়দ্রাবাদ জিতবে কে?

লিগ টেবিলে এখন শীর্ষে রয়েছে ২০১৬ সালের চ্যাম্পিয়ন সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আর কলকাতা নাইট রাইডার্স চার নম্বরে। অজি তারকা ডেভিড ওয়ার্নারকে ছাড়াই কেন উইলিয়ামসনের নেতৃত্বে প্রথম দু’টি ম্যাচ জিতে নিয়েছে হায়দরাবাদ। অন্যদিকে, কলকাতা প্রথম ম্যাচে দুর্দান্ত জয়ের পর হোঁচট খেয়েছে দ্বিতীয় ম্যাচে। শনিবার আইপিএল ক্রিকেট ২০১৮’র দশম ম্যাচে দুই টিম মুখোমুখি হচ্ছে। রাত আটটায় কলকাতার ইডেন্স গার্ডেন্সে ম্যাচ শুরু হবে।

হায়দরাবাদের কাছে এই ম্যাচ জয়ের ধারা অব্যাহত রাখার, আর কলকাতার কাছে এই ম্যাচে জয়ে ফেরার।

নাইট শিবির…

দ্বিতীয় ম্যাচে হারলেও আন্দ্রে রাসেল বুঝিয়ে দিয়েছেন টুর্নামেন্টে তাঁর ব্যাট আর কি কি করতে পারে। ব্যাটিংই কলাকাতর মূল শক্তি। ক্রিস লিন, সুনীল নারিনের ওপেনিং জুটি বড় রানের ভিত গড়ে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। আর অধিনায়ক দিনেশ কার্তিক যা ফর্মে আছেন, তাতে কোন মাঠে খেলা হচ্ছে, সেটা কোনও ফ্যাক্টর নয়।

ইডেনে নাইটরা বরাবরই শক্ত প্রতিপক্ষ। তবে, দলের বোলিং দুর্বল। স্পিন ডিপার্টমেন্ট অভিজ্ঞ হলেও, পেস বোলিং নিয়ে কোনও ভরসা নেই। কমলেশ নাগার কোটিকে এখনও ব্যবহার করাই হয়নি। শনিবারও সেই সম্ভাবনা নেই। আর বিনয় কুমার সানরাইজার্স ম্যাচে খেলবেন। কিন্তু, তাঁর ওপর কোনও ভরসা নেই, কখন টিমকে ডুবিয়ে দেবেন।

সম্ভাব্য প্রথম একাদশ  – ক্রিস লিন, সুনীল নারিন, রবিন উথাপ্পা (উইকেটরক্ষক), নীতিশ রানা, দিনেশ কার্তিক (অধিনায়ক), রিঙ্কু সিং, আন্দ্রে রাসেল, টম কারেন, বিনয় কুমার, কুলদীপ যাদব ও পীযূষ চাওলা।

সানরাইজার্স ডাগ আউট…

এবার দুর্দান্ত শুরু করেছে ২০১৬’র চ্যাম্পিয়নরা। লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা, তাও দলের সেরা খেলোয়াড় বাদ পড়ে যাওয়ার পর। টিম এবার ব্যালান্সড হলেও, বোলিংয়ের চেয়ে ব্যাটিংকেই এগিয়ে রাখতে হবে। টপ অর্ডারই দলকে টানবে। শিখর ধওয়নের ফর্ম সানরাইজার্সের প্লাস পয়েন্ট। কলিন মুনরোর ফর্মে ফেরার অপেক্ষা। কেন উইলিয়ামসন অধিনায়ক হিসেবে ভালোভাবেই টিম চালাচ্ছেন। মণীশ পান্ডে টিমের আরেক হেভিওয়েস্ট স্টার। ঋদ্ধিমান সাহার দিকে বিশেষ নজর থাকবে। বাংলার ক্রিকেটার হওয়ায়, ইডেনকে নিজের হাতের তালুর মতো চেনেন।

সিদ্ধার্থ কউল ও ভুবনেশ্বর কুমার মতো পেস বোলার থাকায় বোলিং লাইনআপ সমৃদ্ধ। এই দু’জন ছাড়াও আফগান স্পিনার রশিদ খানের স্পিন বোলিং সামলানো কেকেআর ব্যাটসম্যানদের কাছে চ্যালেঞ্জ হবে। কারণ, রশিদের বল বুঝে ওঠার আগেই তিনি রানের গতি স্লথ করে দেন বিপক্ষ টিমের। তাঁর চারটে ওভার খুব গুরুত্বপূর্ণ হায়দরাবাদের জন্য। তার ওপর শাকিব রয়েছেন বিপক্ষ টিমের সমস্যা বাড়ানোর জন্য।

সম্ভাব্য প্রথম একাদশ –

ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটকিপার), শিখর ধওয়ন , কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), মণীশ পান্ডে, দীপক হুদা, ইউসুফ পাঠান, শাকিব আল হাসান, রশিদ খান, ভুবনেশ্বর কুমার, সিদ্ধার্থ কউল ও বিলি স্ট্যানলেক।

ব্যাটিং-বোলিং দ্বৈরথ…

ইডেনে নাইট রাইডার্সের কুলদীপ যাদব ও সানরাইজার্সের শিখর ধওয়ন লড়াই জমে উঠতে পারে। ধওয়নকে আটকাতে দিনেশের সেরা বাজি চায়নাম্যান স্পিনারই হবেন।

অন্যদিকে, সানরাইজার্সের রশিদ খানের বোলিংয়ের সামনে আন্দ্রে রাসেলের ব্যাট কলকাতার সেরা বাজি।

মুখোমুখি সাক্ষাৎ…

কলকাতা নাইট রাইডার্স ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এখনও পর্যন্ত ৯ বার মুখোমুখি হয়েছে। তার মধ্যে ৬ বার জিতেছে শাহরুখ খানের টিম। উল্লেখ, করার মতো ব্যাপার হলো সানরাজার্স যে তিনবার জিতেছে, তার কোনওবারই এই ইডেনে নয়। নন্দনকাননে কেকেআর অপরাজেয় সানরাইজার্সের সামনে। এই ব্যাপারটা কলকাতাকে অ্যাডভান্টেজে রেখেছে।

ম্যাচের সম্ভাব্য ফলাফল?

ম্যাচ হাইস্কোরিং হবে। টসে খুব একটা বড় ভূমিকা নাও নিতে পারে, দুই টিমে বিগহিটার থাকায়। কিন্তু, ইডেনে সানরাইজার্সের অতীত রেকর্ড তাদেরকে ব্যাকফুটে রেখেছে। শনিবার সম্ভবত এবারের আইপিএলে প্রথম ধাক্কা খেতে চলেছে তারা। কেকেআর আশি শতাংশ ম্যাচ জেতার দাবিদার।

ম্যাচ দেখা যাবে…

রাত আটটায় ইডেন গার্ডেন্স থেকে সরাসরি সম্প্রচার স্টার স্পোর্টস ১ ও হিন্দিতে। দেখা যাবে এইচডি চ্যানেল দু’টিতেও। হটস্টার, এয়ারটেলটিভি ও জিওটিভিতেও অনলাইন সম্প্রচার হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: