রাতারাতি বদলে গেল ভারতের এই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের নাম!

আজ সন্ধ্যায় লখনউয়ে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে ভারত এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এই ম্যাচ নিয়ে খুব যে আকর্ষণ আছে তা বলা যাবে না। এই ওয়েস্ট ইন্ডিজ অতীতের ছায়াও নয়। ব্যাটিং বিভাগে শিমরন হেটমায়ার এবং শে হোপ ছাড়া আর কেউ পাতে দেওয়ার মতো নয়। বোলিংয়ের অবস্থাও তথৈবচ। কিন্তু একটা বিষয়ে এই ম্যাচ ঘিরে আগ্রহ তৈরি হয়েছে। সেই কারণ আদৌ ক্রিকেটীয় নয়।

লখনউয়ের যে স্টেডিয়ামে এই ম্যাচ খেলা তার নাম পরিবর্তন করা হয়েছে হঠাৎ করেই। সোমবার উত্তরপ্রদেশ সরকারের পক্ষ থেকে একানা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামের নতুন নামকরণ করা হয়েছে ‘ভারতরত্ন অটল বিহারী বাজপেয়ী ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়াম’। এ বছর আগস্ট মাসে ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর দেহাবসান ঘটে। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৩। তাঁর সম্মানেই এই নামকরণ। উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপাল শ্রী রাম নায়েক রাজ্য সরকারের এই নাম পরিবর্তনের প্রস্তাব সমর্থন করলে প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি (হাউজিং) নীতিন রমেশ গোকারান সোমবার এই আদেশ জারি করে দেন।

তবে এই নাম বদলের ক্ষেত্রে কিছু জটিলতা ছিল। লখনউ ডেভেলপমেন্ট অথরিটি’র (এলডিএ) পদস্থ কর্তারা জানান, তাদের সঙ্গে একানা স্পোর্টস সিটি প্রাইভেট লিমিটেড এবং জিসি কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ইন্ডাস্ট্রিজ প্রাইভেট লিমিটেডের চুক্তির ১৭.৫.১ ধারা অনুযায়ী এই স্টেডিয়ামের সমস্ত কাজ সম্পূর্ণ না হলে তার নাম বদল করা যাবে না। এই পরিপ্রেক্ষিতে ইউপি সরকার আসরে নামে। সরকারি হস্তক্ষেপেই ম্যাচের ঠিক আগের দিন প্রয়াত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর নামে স্টেডিয়ামের নামকরণ করা হয়। অটল বিহারী বাজপেয়ী সমস্ত দল নির্বিশেষেই গোটা দেশের কাছে অত্যন্ত শ্রদ্ধেয় একজন ব্যক্তি। দীর্ঘ চার দশক পার্লামেন্টের সদস্য থাকা বাজপেয়ীজির জন্মদিনকে (২৫ ডিসেম্বর) ‘গুড গভর্নেন্স ডে’ হিসেবে পালন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: