যে কোনো মুহূর্তে গ্রেফতার হতে পারেন মহম্মদ স্বামী!

ভারতীয় পেস বোলার মহম্মদ শামির বিরুদ্ধে জারি হতে পারে গ্রেফতারি পরোয়ানা। এমনটাআই জানালেন আলিপুর আদালতের বিচারক। বুধবার মহম্মদ শামির বিরুদ্ধে তাঁর স্ত্রীর করা অভিযোগের ভিত্তিতে চলা মামলার শুনানিতে এমনই মন্তব্য করলেন বিচারক এবং মহম্মদ শামিকে ১৪ জানুয়ারির মধ্যে আদালতে হাজিরার নির্দেশ দিলেন বিচারক৷ বধু নির্যাতন মামলায় ভারতীয় দলের ক্রিকেটারকে কোর্টে তুলেছেন তাঁর স্ত্রী হাসিন জাহান।

ইতিমধ্যেই হাসিন জাহান পুলিশ কমিশনার ক্রাইম প্রবীণ ত্রিপাঠীর কাছে নিজের স্বামীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন। সাথে শামি ও তাঁর পরিবারের ৪ সদস্যের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, হুমকি, নির্যাতন থেকে শুরু করে খুনের চেষ্টার মতো একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলাও দায়ের করেছেন । মামলাগুলি করা হয়েছে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৮এ, ৩২৩, ৩০৭, ৩৭৬, ৫০৬, ৩২৮ ও ৩৪ নম্বর ধারায়৷

হাসিন জাহানের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে এবং শামি ও হাসিনের ব্যক্তিগত কথোপকথনের ভিত্তিতে দায়ের করা মামলায় কলকাতা পুলিশ তদন্তেও নামেন এবং মহম্মদ শামির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক জামিন অযোগ্য ধারায় মামলা রুজু করে কলকাতা পুলিশ৷ তবে এসবের কোনও উত্তর আপাতত দেননি মহম্মদ শামি বরং তিনি ব্যস্ত আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সফরেরর জন্য৷ অজিদের বিরুদ্ধে চার টেস্টের সিরিজে শাআমি দলে রয়েছেন এবং সেখানেই উড়ে যাওয়ার কথা শামির যদিও তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ খেলবে না ভারতীয় এই পেস বোলার।

ভারত চতুর্থ তথা শেষ টেস্ট খেলবে সিডনিতে ৩-৭ জানুয়ারি, তার পরেই জানুয়ারির ১৪ তারিখ হয়ত আলিপুর আদালতে হাজিরা দিতে পারেন ভারতীয় দলের এই ডানহাতি পেসার এমনটাই মনে করা হচ্ছে৷

এদিকে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার পর হাসিন ও মেয়কে টাকা বন্ধ করে দেন ভারতীয় দলের এই পেসার যা নিয়েও আলোচনা করেছেন এদিন বিচারক। টাকা বন্ধ করে দেওয়া বা হাসিনকে দেওয়া শামির চেক বাউন্স হওয়ার ঘটনাগুলিকে আদালত যে ভালো চোখে দেখছে না তাও জানান আলিপুর আদালতের বিচারক৷

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: