অস্ট্রেলিয়ায় প্রস্তুতি ম্যাচে জ্বলে উঠলেন পৃথ্বী শ, কিন্তু যে ভাবে আউট হলেন..

ক’দিন আগেই টেস্ট সিরিজে তাঁর খেলার পক্ষে সওয়াল করেছিলেন সুনীল গাভাসকরের মতো ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব। লোকেশ রাহুলের মতো অভিজ্ঞ ওপেনারের জায়গায় তাঁকেই ওপেন করতে দেখতে চান ‘সানি ভাই’। কারণ সাম্প্রতিক ফর্মের বিচারে রাহুলের চেয়ে অনেক এগিয়ে তিনি। তিনি, ভারতের নতুন টিন-এজ সেনসেশন পৃথ্বী শ। সিডনিতে প্র্যাকটিস ম্যাচে ৬৯ বলে ৬৬ রান করে প্রমাণ করলেন, গাভাসকর ভুল বলেননি।

India’s cricketer Prithvi Shaw celebrates his century during the first day of the first cricket test match between India and West Indies in Rajkot, India, Thursday, Oct. 4, 2018. (AP Photo/Rajanish Kakade)

সিডনির মাঠে সিএ একাদশের সঙ্গে এই মুহূর্তে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলছে ভারতীয় দল। সেই ম্যাচে ওপেন করতে নেমে দারুণ পারফরম্যান্স করে অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টে নিজের জায়গা পাওয়ার দাবি জোরালো করলেন। তাঁর ইনিংসে যেটা চোখে পড়ার মতো তা হল তাঁর ব্যাকফুট ড্রাইভ। ছোটখাটো চেহারার পৃথ্বীর ব্যাকফুটে খেলার দক্ষতা যে অস্ট্রেলিয়ান পরিবেশের জন্য উপযুক্ত তা কে না জানে। ৬৬ রানের ইনিংসে ফ্রন্টফুটে ড্রাইভ করতেও দেখা গেছে পৃথ্বীকে। অস্ট্রেলিয়ায় আসার আগে ভারত এ দলের হয়ে নিউজিল্যান্ডেও ভালো ব্যাটিং করেছেন তিনি।

এই প্রস্তুতি ম্যাচে ভারত প্রথমে ব্যাট করে মোট ৩৫৮ রান তোলে। পৃথ্বী ছাড়াও অধিনায়ক কোহলিকে তাঁর স্বভাবসিদ্ধ টাচে দেখতে পাওয়া গেল। ৮৭ বলে ৬৪ রানের সুন্দর ইনিংস খেললেন তিনি। এই সিরিজে তিনিই যে ভারতের তুরুপের তাস তা লেখার অপেক্ষা রাখে না। চেতেশ্বর পূজারাও ক্রিজে বেশ খানিকটা সময় কাটিয়ে নিতে পেরেছেন। যদিও ৫৪ রানের মাথায় আউট হয়ে যান তিনি। এছাড়া, অজিঙ্ক রাহানে, হনুমা বিহারীরাও মোটামুটি ভালোই রান পেয়েছেন। কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, ফের ব্যর্থ হয়েছেন কে এল রাহুল। ৩ রানের মাথায় হঠকারী শট খেলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। মুরলী বিজয়কে এই ম্যাচে খেলানো হয়নি।

ভারতীয় টিম-ম্যানেজমেন্ট অ্যাডিলেড টেস্টের জন্য সম্ভবত পৃথ্বী এবং রাহুলকে ভাবছিল। কিন্তু টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে অজিদের দেশে লাগাতার ব্যর্থ হওয়ার পরেও রাহুলকে কতদূর ব্যাক করা হয় সেটাই দেখার। সুনীল গাভাসকরের মতামত নিশ্চয়ই কানে এসেছে কোহলিদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: