কোহলির সমালোচনায় করায় স্মিথকে এক হাত নিয়ে যা বললেন সৌরভ, শুনলে বলবেন এটাই সঠিক জবাব

দক্ষিণ আফ্রিকায় সিরিজ হারের পর বিরাট কোহলি-র তীব্র সমালোচনা করেছিলেন সে দেশের প্রাক্তন তারকা অধিনায়ক গ্রেম স্মিথ। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন ওপেনার তথা অধিনায়ক স্মিথ বলছেন, তাঁর মনে হয় দীর্ঘমেয়াদে কোহলি টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক থাকতে পারবে না। কোহলির নেতৃত্বে নিয়ে স্মিথ বলেছিলেন, বছর শেষে যখন কোহলি অনেকগুলো বিদেশ সফর করে দেশে ফিরবেন, তখন দেশের অধিনায়ক হিসেবে বিকল্প খোঁজার দাবি উঠবে। দক্ষিণ আফ্রিকায় কোহলির অধিনায়কত্ব একেবারেই মনে ধরেনি স্মিথের। বিরাট কোহলিকে নিয়ে এমন কটাক্ষের জবা দিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। গ্রেম স্মিথ যখন কোহলির তেড়ে সমালোচনা করছেন, তখন তাঁর পাশে বসে ছিলেন সুনীল গাভাসকর। সে সময় সানি চুপ থাকলেও সৌরভ গাঙ্গুলি কিন্তু স্মিথকে পাল্টা দিলেন।

সৌরভ বললেন, কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়ে গ্রেম স্মিথ যে কথাগুলো বললেন, সেটা সত্যিই হতাশাজনক। কারণ আমরা যারা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অধিনায়কত্ব করেছি তারা জানি প্রথম বিদেশ সফর সব সময়ই কঠিন। কোহলির নেতৃত্বে টিম ইন্ডিয়া দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট সিরিজে হারল ঠিকই কিন্তু ভুলে গেলে চলবে না এটাই কোহলির প্রথম বড় বিদেশ সফর। আমি জানি এই সফরে যে ভুলগুলো দল করল সেটা ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়ায় করবে না।

ক্রিক ইনফো-র এক অনুষ্ঠানে গ্রেম স্মিথ বলেছিলেন, ‘বিদেশের মাটিতে টেস্ট খেলেত এসে কোহলির কাঁধে চাপ থাকবেই৷ পরিস্থিতিও কঠিন হবে৷ এসময় প্লেয়ারদের সঙ্গে কথা বলে সেরাটা বার করে আনাই অধিনায়কের কাজ৷ বিদেশের মাটিতে কোহলির মতো ভারতের অন্য ক্রিকেটাররাও চাপে রয়েছে৷ সেক্ষেত্রে কোহলিকে একটু সংযত হতে হবে৷ পরিণত অধিনায়কের মতো আগলে রাখতে হবে দলকে৷’

কোহলির হয়ে ব্যাট ধরে সৌরভ বললেন, ‘সেঞ্চুরিয়ান ও দারুণ ব্যাট করল। দলের কাছে উদাহরণ হওয়ার চেষ্টা করল। তবে চলতি সিরিজে ভারতের সমস্যা হচ্ছে সবাই এক সঙ্গে ক্লিক করছে না। আসলে বিদেশ সফরে এমন সমস্যা হয়। আশা করি বিরাট এখান থেকে শিখবে।”

স্মিথ বলেছিলেন, কোহলি দীর্ঘমেয়াদে ভারতের অধিনায়ক নাও থাকতে পারেন। সৌরভ বললেন, ” দীর্ঘমেয়াদ বলতে ও কতদিন বলছে, তা জানি না। তবে ক্রিকেট হল পারফরমিং স্পোর্টস। ভাল খেললে তবে থাকবে। সেটা সবার ক্ষেত্রে সত্যি। তবে আমার কোহলির সম্পূর্ণ আস্থা আছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অধিনায়ক গ্রেম স্মিথের বক্তব্য, দীর্ঘস্থায়ী ভিত্তিতে বিরাটের অধিনায়কত্ব নিয়ে তাঁর সংশয় আছে। আরও পড়ুন: ​ ওয়ান ডে-তে বিশ্রামে বিরাট প্রোটিয়াদের সবচেয়ে সফল টেস্ট অধিনায়কের বক্তব্য, ‘আমি যখন ওর অধিয়াকত্ব দেখি, কেন জানি না আমার মনে হয়, দীর্ঘস্থায়ী ভিত্তিতে বিরাটের অধিয়াকত্ব ভারতের পক্ষে ভালো হবে কিনা।

এই কথাটা নিয়ে সৌরভের বক্তব্যটা খুব সাফ। কোহলি সবে শুরু করেছেন। প্রথম কঠিন বিদেশ সফরে ব্যর্থ হওয়া মানেই তাঁকে এভাবে আক্রমণ করা নয়।

অধিনায়ক কোহলির জন্য কঠিন পরিস্থিতির সমাধানের উপায়ও বলে দিচ্ছেন প্রোটিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক৷ স্মিথের মতে, ”কোহলির এই মুহূর্তে পরামর্শদাতা দরকার৷ সেক্ষেত্রে এই কাজটা করতে পারে দলের কোনও একজন সাপোর্ট স্টাফ৷ তাঁর কাজ হবে কোহলিকে গাইড করা৷”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: