আইপিএল ২০১৮: দলের প্রধান খেলোয়াড়কে ছেড়ে দিলো এই দল!

আইপিএলের প্রথম চ্যাম্পিয়ন রাজস্থান রয়্যালস এখনও তাদের প্লেয়ার রিটেনশন নিয়ে প্রহেলিকায় আটকে রয়েছে। দু’বছর নিষিদ্ধ থাকার পর ভারতের উত্তরাঞ্চলের এই হাই প্রোফাইল ফ্রেঞ্চাইজির কাছে প্রচুর অপশন রয়েছে রিটেনশনের ক্ষেত্রে। কিন্তু স্পোর্টস স্টারের বেশ কিছু রিপোর্ট অনুযায়ী রয়্যাল ক্যাম্প কোনো প্লেয়ারকেই রিটেন করবে না।

এটা বাস্তবে এমন একটা খবরের ধামাকা যে, এই ফ্রেঞ্চাইজির মতে তাদের দলে অস্ট্রেলীয় অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ এবং সর্বদা নির্ভরযোগ্য অজিঙ্ক রাহানের মত শক্তিশালী খেলোয়ার রয়েছে। এই দুই খেলোয়ারই আগে ক্লাবের প্রতি প্রচুর যোগদান দিয়েছেন। যদি এই সমস্ত রিপোর্টে বিশ্বাস করা যায়, তাহলে এই ফ্রেঞ্চাইজি তাদের রাইট টু কার্ড ব্যবহার করবে নিলামে এই দুই প্লেয়ারকে ফের ফিরে পাওয়ার জন্য। আর যদি তথ্যের কথা ধরা হয় তাহলে এই দুই প্লেয়ারকে রিটেন করার জন্য ফ্রেঞ্চাইজিকে ২১ কোটি টাকা খরচা করতে হবে। তাই ফ্রেঞ্চাইজি এই দুই প্লেয়ারকে রাখার জন্য অন্য কোনো বিকল্পের খোঁজ করছে।

জানুয়ারির ৪ তারিখের আগে জমা দেওয়া রিটেন প্লেয়ারদের তালিকা

আপিএল গর্ভনিং কমিটি আগেই ঘোষণা করে দিয়েছে যে আগামি ২৭ এবং ২৮ জানুয়ারি ব্যাঙ্গালোরে নিলাম অনুষ্ঠিত হবে। এরফলে সমস্ত দলকেই তাদের প্লেয়ারদের তালিকা জমা দিতে হবে, যাদের তারা রিটেন করতে চান, ৪ জানুয়ারির আগে। এটা দেখা বেশ ইন্টারেস্টিং হবে যে যদি কোনো ফ্রেঞ্চাইজি তালিকা জমা দেওয়ার ডেড লাইনের এক্সটেনশন চায়, যদিও তা হবার নয়। অজিঙ্ক রাহানে এবং স্টিভ স্মিথের প্রতি সমস্ত শ্রদ্ধা  রেখেই এই দুই প্লেয়ারদের জন্য বিসিসিআইয়ের ফিক্স প্রাইস দিতে অসমর্থতা প্রকাশ করেছে। বাস্তবে এটা এই ফ্রেঞ্চাইজির নেওয়া তাড়াতাড়িতে নেওয়া খারাপ সিদ্ধান্তের মত শোনাচ্ছে না এই দু’জনকে নিলামে নেওয়ার জন্য, কারণ তারা ৮ থেকে ৯ কোটির টাকার বেশি এই দুজনের জন্য নিলামে খরচা করতে পারবে না।

India’s Ajinkya Rahane, left, plays a shot in front of Sri Lanka’s Niroshan Dickwella during the first day’s play of the first test cricket match between India and Sri Lanka in Galle, Sri Lanka, Wednesday, July 26, 2017. (AP Photo/Eranga Jayawardena)

বর্তমানে রাজস্থান রয়্যালসের কাছে সেই সুযোগ রয়েছে সেই সমস্ত প্লেয়ারদের রিটেন করার যারা তাদের কন্ট্রাক্ট টার্মিনেট হওয়ার পর গুজরাট লায়ান্স অথবা রাইজিং পুনে সুপার জায়েন্টে চলে গেছিলেন। তার মানে রিটেন করার জন্য অন্য প্লেয়ার হতে পারেন জেমস ফকনার। কিন্তু তার চলতি ফর্মকে দেখে কোনো ফ্রেঞ্চাইজিই ১০ কোটির উপর তার দর দিতে চাইবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: