এই ৫ জন তারকা জনসনের জায়গায়, যোগ দিতে পারেন কেকেআরে!

একাদশ আইপিএলের ঢাকে এখনও কাঠি পড়েনি। তার আগেই বেকায়দায় কলকাতা নাইট রাইডার্স। চলতি বছর ১৯ জনে খেলোয়াড় ণীয়ে ব্রিগেড তৈরি করেছে নাইটরা। বল হাতে নেতৃত্ব দেওয়ার কথা অস্ট্রেলিয়ার জোরে বোলার মাইকেল জনসনের। ২ কোটি টাকায় তাঁকে দলে নিয়েছে কলকাতা। কিন্তু এদিন সকালে জিম করতে গিয়ে চোট পেয়ে বসলেন জনসন। মাথা ফেটে যায় তাঁর।

জিম থেকে সরাসরি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। ক্ষতস্থানে চিকিৎসকেরা ১৬ টি সেলাই করেছেন। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন জোরে বোলার।

If you don’t like blood & cuts then don’t look through these pics! Not the best thing I’ve ever done to myself but I’m am fine ?? #toohardtoexplain #dontfightchinupbar #stilldontknowhowitspossible #18.3grrrrr #baldspot?

A post shared by Mitchell Johnson (@mitchjohnson398) on

 

জনসনের চোটের খবর আসতেই চিন্তিত নাইট শিবির। নতুন বলে শুরুর দায়িত্ব তাঁর কাধেই। আইপিএলের ম্যাচ শুরুর আগে ফিট না হলে কী হবে? সে ক্ষেত্রে বিকল্প হিসাবে পাঁচ জন খেলয়াড়ের কথা ভাবতে পারে কলকাতা। তাঁরা হলেন অস্ট্রেলীয়ার জেমস ফকনার, হ্যাজেলউড, মিচেল ম্যাকক্লেনঘান, ভারতের ইশান্ত শর্মা ও দক্ষিণ আফ্রিকার ডেইল স্টেইন। এখানে এই প্লেয়ারদের অবস্থান দেখে নেওয়া যাক এক ঝলকে।

জেমস ফকনার

James Faulkner of the Gujarat Lions celebrates the wicket of Parthiv Patel of the Mumbai Indians during match 35 of the Vivo 2017 Indian Premier League between the Gujarat Lions and the Mumbai Indians held at the Saurashtra Cricket Association Stadium in Rajkot, India on the 29th April 2017
Photo by Vipin Pawar – Sportzpics – IPL

অষ্ট্রেলিয়ান ফকনারকে অলরাউন্ডার। ভারতের বিপক্ষে টি টোয়েন্টি ম্যাচেই আবির্ভাব তাঁর। টি টোয়েন্টিতে তাঁর ব্যটিং গড় ১৯.৫০। প্রথমবার আইপিএল খেলেন পুনে ওয়ারিয়ার্সের হয়ে। কিংস ইলাভেন পাঞ্জাব, রাজস্থান রয়্যালস, গুজরাট লায়ন্সের হয়েও খেলেছেন। অবশ্য চলতি মরশুমে থেকে গেছেন অবিক্রিত। তাঁকে কেনেনি কোনও দল।
তাই মাইকেল জনসনের বিকল্প হিসাবে বেছে নেওয়া যেতে পারে তাঁর দেশেরই অলরাউন্ডার জেমস ফকনারকে।

ইশান্ত শর্মা


ভারতীয় জোরে বোলার ইশান্ত। ২৯ বছরের দিল্লির পেসারের আন্তর্জাতিক অভিষেক হয়েছিল ২০০৭। ১১ বছরে দেশের হয়ে ৮১টি টেস্ট, ৮০টি ওয়ান ডে এবং ১৪টি টি-২০ খেলেছেন। টেস্টে ২৩৪টি উইকেট রয়েছে ইশান্তের। সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে দ্বিতীয় ও তৃতীয় টেস্ট খেলেছেন তিনি। নিয়েছেন আটটি উইকেট।
দশম আইপিএলে সবচেয়ে বেশি দাম ছিল ভারতের এই জোরে বলারের। প্রথম দিকে অবিক্রিত থাকলেও শেষ মুহূর্তে কিংস ইলেভেন প়ঞ্জাব দলে নেয় তাঁকে। তার আগের মরশুমে পুণে সুপার জায়ান্টের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন। চলতি মরশুমে অবিক্রিত থাকায় কাউন্টি খেলার জন্য বোর্ডের কাছে আবেদন করেছিলেন ইশান্ত। তাকেও জনসনের বিকল্প হিসাবে দলে রাখতে পারেন নাইটরা।

জস হ্যাজেলউড

হ্যাজেলউড অষ্ট্রেলীয়ান ক্রিকেটার। অস্ট্রেলিয়ার সর্বকালের সেরা ফাস্ট বোলার জুটি হিসেবে মিশেল স্টার্ক ও জস হ্যাজেলউডকে বেছে নিয়েছিলেন আর এক স্পিডস্টার গিলেসপি। লাইন ও লেংথে অসাধারণ মনযোগী। শৃঙ্খলাবোধ সম্পন্ন খেলোয়াড়।

চলতি বছরে অষ্ট্রেলীয় পেসার জস হ্যাজেলউডের বেস প্রাইস ছিল ২ কোটি টাকা। ২০১৫ আইপিএলে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের দলে ছিলেন। কিন্তু দেশের হয়ে ব্যস্ত থাকায় আইপিএল খেলতে পারেননি।

ডেইল স্টেইন

দক্ষিণ আফ্রিকার জোরে বোলার স্টেইন। ৭৫ ম্যাচে ৩৮৩ উইকেট, ওয়ানডে খেলেছেন ৮৭টি, শিকার ১৩৫ জন। আইপিএলে সর্বোচ্চ ১৫৬.২ কিলোমিটার বেগে বল করেছেন স্টেইন। আন্তর্জাতিক ম্যাচে তার সবচেয়ে গতিশীল ডেলিভারি ঘণ্টায় ১৫৫.৭ কিলোমিটার। ২০০৮ ম্রশুনে আইসিসি-র বিচারে সেরা টেস্ট খেলোয়াড় হিসাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেংগালুরু, ডেকান চার্জার্স ও সানরাইজার হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলেছেন। ২০১৬ মরশুমে ছিলেন গুজরাট লায়ন্স দলে।

মিচেল ম্যাকক্লেনাগান


এই বাঁ হাতি জোরে বোলার নিউজিল্যান্ডের হয়ে মাঠে নামেন। ১৪ টি টোয়েন্টি ম্যাচে ১৮ টি উইকেট আছে তাঁর পকেটে। এখন পর্যন্ত ৪৮ টি ওয়ানডে ও ২৪ টি টি-টোয়েন্টি খেলা ম্যাকক্লেনাগানের এখনও টেস্ট অভিষেক হয়নি।

তবে আইপিএল খেলেছেন। গত মরশুমে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে হাত ঘুরিয়েছেন। চলতি বছর দল পাননি তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: