সেঞ্চুরিয়নে বিরাটের মেগা ইনিংস : রেকর্ড বুক বলছে, ভারত ম্যাচ বাঁচিয়ে নেবে

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের তৃতীয় দিন ভারতের প্রথম ইনিংসে অধিনায়ক বিরাট কোহলি শতরান করেছেন। দ্বিতীয় দিনেই বিরাট আশি রানে পৌঁছে গিয়েছিলেন। তৃতীয় দিন শতরানে কখন পৌঁছোন, শুধু সময়ের অপেক্ষা ছিল। এই নিয়ে টেস্টের আসকে ২১বার তিন অঙ্কের ঘরে পৌঁছলেন দিল্লির ক্রিকেটারটি। একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁর ৩২টি শতরান ধরলে, আন্তর্জাতকি আসরে ৫৩টি শতরান বিরাটের নামের পাশে।

দক্ষিণ আফ্রিকার ৩৩৫ রানের জবাবে ভারতের প্রথম ইনিংস ৩০৭ রানে শেষ হয়েছে। প্রোটিয়া টিম ২৮ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করা শুরু করেছে। ম্যাচের এখনও দু’দিন বাকি আজকে বাদ দিলে।

রেকর্ড বুক বলছে, বিরাটের এই নিয়ে ৯ বার দেড় শতাধিক রানের ইনিংস খেললেন টেস্টের আসরে। তার মধ্যে ৬ বার তাকে ডাবল সেঞ্চুরিতে পরিণত করেছেন। সেঞ্চুরিয়নে ডাবলের অনেক আগে থেমে গেলেও, ইতিহাস কিন্তু ভারতের পক্ষে।

কেন?

সেঞ্চুরিয়নে প্রোটিয়া বোলারদের বিরুদ্ধে মেগা ইনিংস খেলার মুহূর্তে ন’বার দেড়শো রান পার করার নজির গড়লেন বর্তমান ভারত অধিনায়ক। এর আগের আটবারের মধ্যে ভারত একবারও ম্যাচ হারেনি। ২ বার ম্যাচ ড্র করেছে এবং ৬ বার ম্যাচ জিতেছে। ফলে, বিরাটের ট্র্যাক রেকর্ড ভারতের পক্ষে।

বিশ্বের তৃতীয় ব্যাটসম্যান…

টেস্ট ক্রিকেটের আসরে দিল্লির ক্রিকেটারটি বিশ্বের তৃতীয় ব্যাটসম্যান যিনি সব টেস্ট খেলিয়ে দেশগুলির বিরুদ্ধে দেড় শতাধিক রান করেছেন (যাঁদের বিরুদ্ধে তিনি মাঠে নেমেছেন)। এখানে উল্লেখ্য, বিরাট পাকিস্তান এবং জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত কোনও টেস্ট ম্যাচ খেলেননি। কোহলির ছাড়া সব টেস্ট খেলিয়ে দেশগুলির বিরুদ্ধে দেড় শতাধিক রানের ইনিংস খেলার কৃতিত্ব অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি অধিনায়ক স্টিভ ওয়া এবং ক্রিকেট গড শচীন তেন্ডুলকরের দখলে রয়েছে।

টেস্টে বিরাটের দেড় শতাধিক রান –

১. মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর ১৬৯ রান। ড্র হয় ম্যাচ।

২. ২০১৬ সালের ২১ জুলাই অ্যান্টিগায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ২০০ রান। ভারত জয়ী।

৩. ৮ অক্টোবর, ২০১৬ – ইন্দোরে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২১১ রান। ভারত জয়ী।

৪. বিশাখাপত্তনমে ২০১৬ সালের ১৭ নভেম্বর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১৬৭ রান। ভারত জয়ী।

৫. ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬ – ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ২৩৫ রান। ভারত জয়ী।

৬. ২০১৭ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি হায়দরাবাদে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ২০৪ রান। ভারত জয়ী।

৭. ২০১৭ সালের ২৪ নভেম্বর নাগপুরে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ২১৩ রান। ভারত জয়ী।

৮. ২০১৭ সালের ২ ডিসেম্বর দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ২৪৩ রান। ম্যাচ ড্র।

৯. ২০১৮, ১৩ জানুয়ারি – সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ১৫৩ রান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: