বিশ্ব সুন্দরীর মুখ থেকে বেরিয়ে এলো, ‘আমি বিরাটকে খুব ভালোবাসি’

কি বলা যায়? সত্য়ি বলতে ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি এখন যা ফর্মে আছেন এবং তাঁকে নিয়ে যেভাবে চারিদিকে আলোচনা চলেছে, তাতে বিরাট জাদুতে মোহিত হোননি, এমন ব্য়ক্তি হয়ত বা কেউ আছেন! মাত্র ঊনত্রিশ বছর বয়স হলেও, এই পর্বে দিল্লির ক্রিকেটারটি যে সাফল্য় অর্জন করেছেন, তাঁতে তাঁর প্রশংসকের সীমা বহুদিন আগেই বাঁধ ভেঙেছে। আমাদের বিশ্ব সুন্দরী মানুষী চিল্লরও বিরাট জাদু থেকে নিজেকে আড়াল করতে পারেননি। আর কেউ নন, বর্তমান ভারত অধিনায়কই বিশ্ব সুন্দরীর সবচেয়ে পছন্দের ক্রিকেটার।


এজেন্ডা আজতক ২০১৭ শীর্ষক একটি অনুষ্ঠানে প্রশ্নের সামনে পড়ে এবারের মিস ওয়ার্ল্ড মানুষী বলেন, তিনি বিরাটকে খুব ভালোবাসেন। ওই অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে হরিয়ানার একসময়কার মেডিকেল ছাত্রী বলছেন, ”আমি বিরাট কোহলিকে খুব ভালোবাসি। ও অনেক সাফল্য় অর্জন করেছে।” এরপর বিরাটের প্রশংসা করে মিস ওয়ার্ল্ড বলেন যে বিরাট ইদানিং যা ফর্মে আছেন, তাতে ভারতীয় দলকে টেস্ট এবং সীমিত ওভারের ক্রিকেটকে বেশ ভালো রকম সাহায্য় করছেন এক নতুন উচ্চতায় পৌঁছতে।


সম্প্রতি সিএনএন-আইবিএন ইন্ডিয়ান অফ দ্য় ইয়ার ২০১৭ শীর্ষক একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিরাট ও মানুষী উপস্থিত ছিলেন। সেখানে একে অপরের সঙ্গে সৌজন্য আলাপ-পরিচয়ও হয়। আর সেই ফাঁকেই কৌতূহল মেটানোর জন্য় ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ককে বিশেষ ব্য়াপারে প্রশ্ন করার মতো সময় বিশ্ব সুন্দরীর হাতে না থাকলেও, সুযোগ তিনি হাতছাড়া করেননি। মানুষী জিজ্ঞাসা করেও নেন, ”বর্তমানে তুমি বিশ্বের সেরা ব্য়াটসম্য়ান। অনুপ্রেরণার একনাম তুমি। সমাজকে তুমি অনেক কিছু ফেরৎ দিয়েছ। কিন্তু, এমনও অনেক তরুণ রয়েছে, যারা তোমায় দেখে অনুপ্রেরণা নেয়। আমি কচিকাঁচাদের কথা বলছি। ক্রিকেটের ক্ষেত্রে। তুমি তাদেরকে কিভাবে অনুপ্রেরিত করো?”।

New Delhi: Union Minister for Finance and Corporate Affairs, Arun Jaitley honours Miss World 2017 Manushi Chhillar as Indian captain Virat Kohli looks on during 11th edition of CNN-News18 Indian of the Year Awards in New Delhi on Thursday. PTI Photo by Vijay Verma (PTI11_30_2017_000218B)

বিরাট মানুষীর প্রশ্নের উত্তরটাও দেন এবং বোঝান, তিনি কিভাবে ক্রিকেটার হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলেছেন। আর সেই সঙ্গে মানুষ হিসেবে নিজেকে তৈরি করেছেন। বিরাট মনে করিয়ে দিয়েছেন, সবার আগে যেটা জরুরি, সেটা হলো, নিজের আত্মপরিচয়কে কখনও বিসর্জন দিতে নেই।
”বড় ব্য়াপার হলো, বুঝতে হবে – কখন কি করছ। মাঠে কিভাবে নিজেকে প্রতিফলিত করছ। নিজের কাছে সৎ থেকে, খেলাটাকে হৃদয় দিয়ে খেলতে হবে। কারণ, মানুষ যদি বুঝতে পারে, তুমি লোক দেখানির জন্য় করছ, তোমার সঙ্গে কেউ যুক্ত হতে পারবে না। আমি কোনওদিন অন্য় কারওর মতো নিজেকে দেখানোর চেষ্টা করিনি। নিজে যেটা, সেটাই তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আমি অনেকবার বলেওছি, অনেকের আমাকে নিয়ে সমস্য়া আছে। আমি কিভাবে আচরণ করি, চলাফেরা করি, তা নিয়ে। কিন্তু, আমি সেটাকে কোনওদিন সমস্য়া মনে করিনি।”
”যে সময় আমার মনে হয়েছিল, বদলানো দরকার, আমি বদলেছি। কারণ, একটা বয়স আসে যখন পরিণত হতে হয় সবাইকেই। কিন্তু, তাই বলে নিজের আত্নপরিচিতি কোনওদিন বদলাতে নেই। কারণ, অন্য় কারও মতো হতে গেলে, সফলতা কোনওদিনই আসবে না। কাউকে অনুপ্রেরিতও করতে পারবে না।”
বিরার মানুষীকে একথাও বলেন, ”আমি একটা কথা মনেপ্রানে বিশ্বাস করি, সবার মধ্য়েই একটা কঠোর দিক থাকে যেটা আমাদের সেই কাজটা করতে সাহায্য় করে, যেটা আমরা করতে চাই। কেউই রোজরোজ মাঠে নেমে উইকট নিতে পারে না বা রান করতে পারে না। সবারই একটা পরিকল্পনা থাকে আর সেই পরিকল্পনাটা মাঠে নামলেই প্রয়োগ করা যায়। কঠোর পরিশ্রম করাটাই আসল ব্য়াপার। আর সেই সঙ্গে নিজের কাছে সৎ থাকতে হবে।”
উল্লেখ্য়, সম্প্রতি ভারত-শ্রীলঙ্কা টেস্ট সিরিজের দ্বিতীয় ম্য়াচে কোহলি নাগপুরে একাধিক রেকর্ড গড়েছে, ছুঁয়েছেন আবার ভেঙেছেন। আর তার মধ্য়ে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য় হলো, ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে এক ক্য়ালেন্ডার বর্ষে দশটি আন্তর্জাতিক শতরান করার নজির। আবার ভারত অধিনায়ক হিসেবেও ক্য়াপ্টেন কোহলির নামের পাশে বারোটি শতরান। সুনীল গাভাস্কারের এগারোটি শতরানের নজির ছাপিয়ে বিরাট এখন ভারত অধিনায়ক হিসেবে শতরান করার দিক থেকে সবার শীর্ষে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: