বাংলায় মসৃন গতিতে রথ চালাতে প্রস্তুতি সেরে নিল মহিলা মোর্চা

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন,

“মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি অনুমতি দেন, রথের ‘র’ থাকবে না। চাকাও থাকবে না। দড়িও থাকবে না। অনেক দেখেছি। আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে। আমাদের হাত বাঁধা। অনুমতি পেলে অণুবীক্ষণ যন্ত্র দিয়েও কোনও বুথে আপনাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না। আমাদের সৌজন্য আমাদের দুর্বলতা নয়।”

ফিরহাদ হাকিম বলেছেন,

“বাংলায় বিজেপি রথ করবে? বাংলার ছেলেরা চুড়ি পরে বসে নেই।”

অর্থাৎ বাংলায় বিজেপির কাঁটে কি টক্কর হতে চলেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। আর সে কারণে এই ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলায় দলের সদস্য প্রাক্তন আইপিএস আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকেও বসেছিলেন রাজ্য বিজেপি নেতারা।

তবে পিছিয়ে নেই মহিলা মোর্চাও। এদিন অর্থাৎ শনিবার মহিলা মোর্চা নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের পেপ টকে উজ্জীবিত মহিলা মোর্চার সদস্যরা। এদিন মহিলা মোর্চার সোশ্যাল মিডিয়া ও আইটি মিট হয় আসন্ন রথ যাত্রার প্রস্তুতি হিসাবে। সেখানেই বক্তব্য রাখেন বিজেপি নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়। তিনি মহিলা মোর্চার কার্যকর্তাদের যেমন পেপ টক দেন, তেমনই সোশ্যাল মিডিয়ায় আরও অ্যাক্টিভ হতেও নির্দেশ দেন।

তবে ফেক নিউজ থেকেও সাবধান থাকতে বলেন। তবে আজকের অনুষ্ঠান মহিলা মোর্চা কার্যকর্তাদের কতটা উজ্জীবিত করেছে তা রাজ্যের সোশ্যাল মিডিয়া কনভেনার কেয়া ঘোষের একটা বক্তব্যেই পরিষ্কার। তিনি বলেন, ‘আমরা তৈরি।’

প্রসঙ্গত, ডিসেম্বরের ৫, ৭ ও ৯ তারিখে রাজ্যের তিন জায়গা থেকে রথ বের করবে বিজেপি। প্রথমটি তারাপীঠ, দ্বিতীয়টি কোচবিহার ও তৃতীয় রথটি যাত্রা শুরু করবে গঙ্গাসাগর থেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: