ফের বিতর্কে পর্তুগিজ মহাতারকা! এবার ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত রোনাল্ডো

ফের আরেকটা বিতর্কের মাঝে নিজেকে খুজে পেলেন ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে উজ্জ্বল তারকা। রেকর্ড দামে সকলকে চমকে দিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে যোগ দিয়েছেন ইতালির তুরিন শহরের ক্লাব জুভেন্তাসে। সেখানেও তাঁর জৌলুশ যে এক ফোটাও কমেনি, তা সকলেরই জানা। তবে জুভেন্তাসের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচে নেমেই লাল কার্ড দেখেছেন এই পর্তুগিজ মহাতারকা। তার কয়েকদিনের মধ্যেই আরও এক দুঃসংবাদ অপেক্ষা করছিল তাঁর। যে অভিযোগের তির উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে, তা স্তম্ভিত করে দিতে পারে যে কাউকেই। এবার ধর্ষনের অভিযোগ উঠল তাঁর বিরুদ্ধে!

এতক্ষণ ধরে যার সম্পর্কে কথা হচ্ছিল, আশা করি সকলেই বুঝতে পেরেছেন তিনি কে। যারা বুঝতে পারেননি, তাঁদের জন্য বলি, তিনি আর কেউ নন, জুভেন্তাসের ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। ডের স্পেইগেল নামক এক জার্মান সংবাদমাধ্যমের দাবি, ৩৪ বছর বয়সী ক্যাথরীন মায়োরগাকে ২০০৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো ধর্ষণ করেন। এই সংবাদমাধ্যম আরও জানায় যে রোনাল্ডো নাকি এই মহিলাকেই এই বিষয়ে কাউকে কিছু না বলার জন্য ৩ লক্ষ ৭৫ হাজার ডলার দিয়েছিলেন।

ডের স্পেইগেল-এর খবর অনুসারে এই ঘটনাটা ঘটেছিল ২০০৯ সালের জুন মাসে লাস ভেগাসের এক হোটেল রুমে। এইসব কথা তাদের অবশ্য জানিয়েছেন লেসলি মার্ক স্টোভাল, ইনি মায়োরগার পক্ষের আইনজীবী। তিনি এটাও জানিয়েছেন যে ঘটনাটার পর রোনাল্ডো নাকি এই ঘটনার পর হাঁটু গেড়ে মায়োরগার কাছে এই কথা বলেছিলেন যে তিনি ‘৯৯ শতাংশ’ একজন ‘ভালো মানুষ’, কিন্তু ওই ‘১ শতাংশ’ই তাঁকে দিয়ে এই কাজটা করিয়েছে। এই আইনজীবীর ভাষাতে, ‘ক্যাথরিন যৌন হেনস্থার স্বীকার হন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো নামক এক ব্যাক্তির দ্বারা।

Kathryn Mayorga

অন্যদিকে রোনাল্ডোর তরফ থেকেও এবিষয়ে তাঁর মতামত জানা গেছে। এই পুরো বিষয়টিকেই সম্পূর্ণ মিথ্যে বলে উড়িয়ে দিচ্ছেন রোনাল্ডো। তাঁর দাবি, সেই রাতে যা কিছুই হয়েছিল, তাতে দুই পক্ষেরই মতামত ছিল। এদিকে রোনাল্ডোর আইনজীবী র‍য়টার্সে এই বার্তা ইস্যু করেছে যে রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং অবৈধ।এই আইনজীবী আরও বলেছে যে তার মক্কেল জার্মান এই ম্যাগাজিনকে আদালতে অভিযুক্ত করবেন।

যাই হোক, এইরকমের গুরুতর অপরাধের অভিযোগ এমন এক মহাতারকার উপরে এসে পড়াটা অবশ্যই হতচকিত করেছে গোটা বিশ্বকে। এবার দেখার, ক্যাথরিন সত্যিই কি নির্যাতিতা নাকি কেবল রোনাল্ডোর নামকে আঘাত হানতেই এমন মন্তব্য!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: