দেশ চালাতে ব্যর্থ : পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সমালোচনায় শাহিদ আফ্রিদি

যেদিন থেকে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ক্রিকেট অধিনায়ক ইমরান খান তখন থেকেই মনে করা হচ্ছিল ভারর পাক সম্পর্কে নতুন কোনো সমঝোতা তৈরি হবে কিন্তু সমঝোতা তো দূর অস্ত প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পই ভারত-পাক সম্পর্কের অবস্থান যে কে সেই এবং দু দেশের মাঝের লাইন অফ কন্ট্রোলের উত্তেজনাও কমেনি৷ গুলিবিনিময় চলছেই৷ নিজের দেশে আর্থিক বরাদ্দ থেকে শুরু করে সরকারী খরচ কমাতে একাধিক উপায় বাতলালেও ভারত পাক সম্পর্কে ইমরান খান আপাতত ব্যর্থই বলা যায়।

এবার সেই ব্যর্থতাকেই প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন আরও এক পাক ক্রিকেট তারকা শহীদ আফ্রিদি। নাম না করে লন্ডন থেকে পাক তারকা শাহিদ আফ্রিদি পাকিস্তান সরকারকে প্রবল কটাক্ষ করলেন। সে দেশের এই প্রাক্তন ক্রিকেটারের মত পাক সরকারের কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে পরে সরব হলেও  হবে আগে নিজের দেশের পরিস্থিতি সামলানো উচিত। আফ্রিদি সরাসরি বলেন-

“কাশ্মীর ইস্যু নয়৷ আমি মনে করি কাশ্মীরকে দরকার নেই পাকিস্তানের৷ দেশের চারটি প্রদেশ সামলানো সম্ভব হচ্ছে না সেদিকে আগে নজর দেওয়া উচিত পাক সরকারের। আর ভারতকে না দিয়ে কাশ্মীরকে আলাদা দেশ বানানো হোক। বেশকিছু দিন ধরেই পাকিস্তানে ধর্ম অবমাননা আইনে বন্দি থাকা ফাঁসির আসামী খ্রিষ্টান মহিলা আসিয়া বিবিকে মুক্তি দেওয়া নিয়ে তোলপাড় পাক সরকার। ধর্মীয় মৌলবাদী সংগঠনগুলির বিক্ষোভে ইমরান খানের সরকার একপ্রকার কোনঠাসা। একদিকে আই এস আই অন্যদিকে  এই ধর্মীয় মৌলবাদী সংগঠনগুলির চাপে চারটি প্রদেশকে সামলাতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ  ইমরান খানের সরকার।”

আফ্রিদি এদিন লন্ডন থেকে বলেন পাক সরকার আগে নিজের দেশের ওই চারটি প্রদেশকে সামলাক । আফ্রিদির কথায় যে পাকিস্তানেরর সরকার তথা ইমরান খান বেশ কিছুটা ব্যাকফুটে  তা বোঝা  যাচ্ছে। ভারতের সীমান্তে জঙ্গি অনুপ্রবেশের ঘটনা যে ইমরানের ক্ষমতায় আসার পরও কিছুমাত্রায় কমেনি বরং বেড়েছে তার একাধিক প্রমাণ ইতিমধ্যেই সামনে এসেছে আর এবার আফ্রিদির বক্তব্যে দেশ ও বিদেশ উভয় কূটনৈতিক প্রেক্ষাপটেই যে ইমরান খান প্রভাব   বর্জিত  হয়ে দক্ষতার সাথে সামলাতে পারছেন না তাই উঠে আসছে বিশ্লেষকদের একাংশের মন্তব্যে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: