গোটা বিশ্বের বন্দনার মাঝে রোনাল্ডোকে নিয়ে এই একটা বড় বদনাম করলেন এক তারকা, শুনলে চমকে যাবেন

আদ্যপান্ত মেসি-ভক্ত থেকে শুরু করে সিআর সেভেনের ফলোয়ার। সবাই এখন বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে হ্যাটট্রিকারী ক্রিশ্চিয়ান রোনাল্ডোর বন্দনায় মেতেছেন। মাতবেন নাই বা কেন! স্পেনের বিরুদ্ধে ২-৩ গোলে পিছিয়ে থাকা অবস্থায় যে ফ্রিকিক থেকে গোলটা করলেন রোনাল্ডো তার কোনও প্রশংসাই যথেষ্ট নয়। ফেসবুকে থেকে হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপগুলিতে ঘুরতে থাকল রোনাল্ডোর গুণকীর্তন ভরা মেসেজ৷ প্রত্যেকেই একার কাঁধে দলকে টেনে নিয়ে যাওয়ার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন৷ রীতিমতো পরিসংখ্যান তুলে কেউ কেউ বোঝানোর চেষ্টা করলেন, এ বিশ্বকাপের হিরো হতে চলেছেন রোনাল্ডো-ই৷ কারণ, কোনও টুর্নামেন্টে রোনাল্ডো একের বেশি গোল করলে নাকি পর্তুগাল হারেনি৷ ফলে আগামিদিনে তিনি এই পারফরম্যান্স জারি রেখে বিশ্বকাপে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাবেন বলে আশা করছেন ৷

তবে রোনাল্ডোর এই বিশ্বজুড়ে প্রশংসার মাঝে অন্য সুরে বেজেছেন স্পেনের এক মহাতারকা ফুটবলার। জেরার্ড পিকের মুখ নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। মাঠের ভেতর বার্সেলোনা তারকার পা যেমন চলে, তেমনি মাঠের বাইরে মুখ। আর প্রতিপক্ষ যদি হয় রিয়াল মাদ্রিদের কেউ, তাহলে রক্ষা নেই! ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর ক্ষেত্রেও বুঝি তা–ই ঘটল? ম্যাচে স্পেন তখন ৩-২ গোলে এগিয়ে। রীতিমতো জয়ের সুবাস পাচ্ছিল তারা। এমন সময় ৮৭ মিনিটে স্প্যানিশ বক্সের ঠিক মাথায় বল পেয়েছিলেন রোনালদো। তাঁকে পেছন থেকে বাধা দিতে গিয়ে ‘ফাউল’ করে বসেন পিকে। তাঁর হাঁটুর আঘাতে রোনালদো পড়ে যান। ফ্রিকিক পেয়েই বাজিমাত পর্তুগিজ তারকার। স্প্যানিশ ডিফেন্ডার এ জন্য দুষেছেন রোনালদোর ‘ডাইভ’কে। তাঁর মতে, রিয়াল তারকার এমন প্রবণতা আছে। ম্যাচ শেষে পিকে বলেছেন,

‘বিশ্বকাপ শুরুর দুই মিনিটের মধ্যে পেনাল্টির জন্য পিছিয়ে পড়লেও ম্যাচটা যেভাবে শেষ হয়েছে, তাতে ইতিবাচক অনুভূতি নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে। রোনাল্ডোর মাঠে পড়ে যাওয়ার অভ্যাস আছে।’

ড্র দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করলেও খেতাব জয়ের স্বপ্ন দেখেন পিকে। যদিও বিশ্বকাপ শুরুর এক দিন আগে কোচ হুলেন লোপেতেগি ছাঁটাই হওয়ায় বেশ অস্থিরতার মধ্যে রয়েছে স্প্যানিশ শিবির। পিকে তা স্বীকার করে নিলেও এখন শুধু বিশ্বকাপ নিয়েই ভাবতে চান, ‘কিছুটা আঘাত তো পেয়েছিই। এটা কারও জন্য ভালো অভিজ্ঞতা ছিল না। আমরা ফাইনালে উঠতে চাই এবং শিরোপা জয়ের আশা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: