ব্রেকিং: এবার থেকে ইনকামিং কলের জন্য দিতে হবে টাকা

ভারতের মাটিতে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের ৯৫ শতাংশই প্রি-পরিষেবা ব্যবহার করেন। প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে বিভিন্ন মোবাইল পরিষেবা প্রদানকারী কোম্পানিগুলি নিত্যনতুন অফার আমদানি করেন। অথচ মোবাইল ফোনের একদম প্রথম যুগে ব্যাপারটাই ছিল অন্যরকম। তখন ফোন করতে তো বটেই, এমনকী ইনকামিং কলের জন্যেও পয়সা দিতে হত। তবে অন্তত ১০ বছর হয়ে গেছে ইনকামিং কল ফ্রি যে কোনও পরিষেবাতেই।

আর জিও আসার পরে তো প্রায় সবই ফ্রি। কার্যত এখন শুধু ইন্টারনেট এবং ভ্যালিডিটির জন্য পয়সা দিতে হয়। বাজারে টিকে থাকতে এয়ারটেল, ভোডাফোনের মতো কোম্পানিরাও একই ধরনের পরিষেবা দিচ্ছে। কিন্তু, শোনা যাচ্ছে জনতার এই সুবিধা ভোগ করার দিন হয়তো আর থাকবে না।

নিত্যনতুন অফার দিতে গিয়ে নাকি আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়ছে টেলিকম কোম্পানিগুলো। সম্ভবত এই ক্ষতির কারণেই আইডিয়া এবং ভোডাফোন এই দুই কোম্পানি একসঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নাকি ফের ইনকামিং কলের জন্য টাকা খরচ করতে হবে গ্রহীতাদের। অবশ্য প্রতি মিনিটের জন্য টাকা দিতে হবে, ব্যাপারটা সেরকম নয়। কাজেই ভয়ের কিছু নেই।

শোনা যাচ্ছে, টেলিকম কোম্পানিগুলো ২৮ দিন ভ্যালিডিটির জন্য মিনিমাম ৩৫ টাকার প্ল্যান আনতে চলেছে। এছাড়া ৬৫ টাকা এবং ৯৫ টাকার মতো প্ল্যানও আছে যেগুলো প্রদান করছে এয়ারটেল এবং ভোডাফোনের মতো কোম্পানিগুলি। জিও যে এ ব্যাপারে পিছিয়ে থাকবে না তা বলাই বাহুল্য। তারা সম্ভবত ২৮ দিন ভ্যালিডিটির জন্য ৯৮ টাকার প্ল্যান নিয়ে আসছে।

এই সমস্ত প্ল্যান অতি অবশ্যই ইনকামিং কল আর মোবাইল পরিষেবা চালু রাখার জন্য। এছাড়া ৩৫ টাকার প্ল্যানে ২৬ টাকার টকটাইম এবং ১০০ এমবি ডেটা পাওয়া যাবে। যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করেন না তাদের জন্য এই প্ল্যান কার্যকরী। দেখা যাক এই নতুন পরিষেবা প্ল্যান কবে থেকে লাগু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: